আন্তর্জাতিকটাইমলাইনভারত

ভারতের এই রাস্তার কারণে ভয় পেয়েছে চীন, চাপে জিনপিং সরকার

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ ভারত (India) চীনের (China) মধ্যেকার উত্তেজনা ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে। সুযোগ পেলেই সীমান্ত এলাকায় অতর্কিতে ভারতীয় সেনার উপর ঝাঁপিয়ে পড়ছে চাইনিজ সেনারা। বহুবার সতর্ক করেও কোন কথাই শুনছে নারাজ চীন। ২৯ শে আগস্ট রাতে আরও একবার আচমকাই এক হামলার পরিকল্পনা করেছিল চাইনিজ সেনা।

১৯৬২ সালের কথা স্মরণ করাচ্ছে চীন
চীনকে যতবারই সংযত হতে বলা হয়েছে, ততবারই তারা নিজেদের খারাপ রূপটা প্রকাশ্যে এনেছে। ভারতকে দুর্বল প্রতিপক্ষ মনে করে ১৯৬২ সালের কথা মনে করাতে চেয়েছে চীন সরকার। কিন্তু তারা ভুলে যাচ্ছে এটা ২০২০, সেইসময়কার ভারতের সাথে আজকের ভারতের অনেক ফারাক আছে। আজকের এই শক্তিশালী ভারত একবার ঘুরে দাঁড়ালে, চীনকে অনেক কিছু হারাতে হবে।

সীমান্তে সড়ক বানাচ্ছে ভারত
দৌলত বেগ ওল্ডিকে গেট ওয়ে টু আকসাই চীন বলে হয়। ভারত নিজেদের সীমানা থেকে এই দৌলত বেগ ওল্ডি অবধি রাস্তা নির্মান করে নিজেদের ক্ষমতা বৃদ্ধি করছে। এই পথেই ভারত ভারতীয় সেনারা আকসাই চীন পৌঁছাতে পারবে। সেইসঙ্গে শিনজিয়াং যাওয়ার পথে জি-২১৯ হাইওয়ের উপরও নজর রাখতে পারবে। CPEC করিডোরেও নজর রাখতে পারবে।

ভারতকে বাঁধা দিয়ে গোপনে সড়ক বানাচ্ছে চীন
চীন একদিকে ভারতকে সীমান্ত এলাকায় সড়ক নির্মানে বাঁধা দিচ্ছে, কিন্তু অন্যদিকে তারাই সীমান্ত এলাকার সড়ক সংযুক্ত করার জন্য সড়ক নির্মান করছে। ২৯ শে আগস্টের গুগল ইমেজ থেকে জানা যায়, পূর্ব লাদাখে LAC-এর অপরপ্রান্তে চীনের দুই হাইওয়ে সংযুক্ত করার জন্য সড়ক বানাচ্ছে। এই সড়ক মারফত সীমান্ত সংঘর্ষের সময় চীনাসেনা দ্রুতই সাহায্য পেতে সক্ষম। চীন যতই কারসাজি করুক না কেন আজকের দিনের ভারতের সাথে পেরে ওঠা খুবই মুসকিল।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী থেকে শুরু করে প্রতিমন্ত্রী রাজনাথ সিং সকলেরই কড়া বার্তা, ‘ভারতীয় সেনারা কতটা ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে পারে, লাদাখে তাঁর নিদর্শন দেখিয়েছে। তাই ভারতের এক ইঞ্চি মাটিও কেউ ছুঁতে পারবে না’।

Back to top button