টাইমলাইনভারতআন্তর্জাতিক

চীনের পাশে ভারতের এগিয়ে আসাটা বন্ধুত্বপূর্ণ আচরণ বলে মনে করছেন- চীনা রাষ্ট্রদূত সান ওয়েডং

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ কোভিড-১৯ (CVD-19) অর্থাৎ করোনা ভাইরাস (Corona vairas) প্রায় সম্পূর্ণ চীনকেই (chaina) গ্রাস করে নিয়েছে। এই রোগে চীনে মৃতের সংখ্যা প্রায়  ২০০০ ছাড়িয়ে গেছে। এবং আক্রান্তের সংখ্যাও বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭২০০০। চীনের এই দুঃসময়ে চীনের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে ভারত (india)। ব্যক্তিগত নিষেধাজ্ঞা বাতিল করে ভারত থেকে প্রয়োজনীয় সামগ্রী চীনে পাঠানো হচ্ছে ভারত থেকে।

চীনের এই মহামারী পরিস্থিতিতে ভারতের এই পাশে দাঁড়ানোকে বন্ধুত্বপূর্ণ ব্যবহার বলে মনে করছেন চীনবাসী। ভারতের এই আচরণে চীনা রাষ্ট্রদূত সান ওয়েডং ( sun oyang de) ভারতকে বন্ধু বলে সম্বোধন করলেন। তিনি বলেন, ভারতের এই দয়ালু এবং বন্ধুত্বপূর্ণ মানসিকতায় তাঁরা আপ্লুত। তাঁদের এই অসময়ে ভারত যে তাঁদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে, এতে তাঁরা অত্যন্ত খুশি।

১৯৪০-এর দশকে জাপানের (japan) সঙ্গে চীনের যুদ্ধে আহত হয়েছিল প্রচুর চীনা সৈন্য। সেই সৈন্যদের বিনা দ্বিধায় নিজের জীবইনের ঝুঁকি নিয়ে চিকিৎসা করেছিলেন ভারতীয় চিকিৎসক দ্বারকানাথ কোটনিস (Dwarkanath Kotnis)। পূর্বের এই ঘটনাই আজকের এই দুঃসময়ে বারবার মনে পড়ছে চীনা রাষ্ট্রদূত সান ওয়েডং-র। তিনি আরও বলেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra modi) চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়কে এক চিঠিতে তাঁদের এই ভয়াবহ পরিস্থিতি মোকাবিলা করার জন্য স্যালুট জানিয়েছেন। এবং এই পরিস্থিতিতে তাঁদের পাশে থাকার কথা আবারও বলেছেন।

নরেন্দ্র মোদী আরও বলেন, যে চীন এই ভাইরাস মোকাবিলায় খুব তাড়াতাড়ি সফল হবে। করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে তাঁরা ঠিকই বিজয়ী হবেন। চীনা রাষ্ট্রদূত সান ওয়েডং বলেন, এই রোগ প্রতিরোধের জন্য ৮০ বিলিয়ন আরএমবি ব্যবস্থা করা হয়েছে। এই ভাইরাসের মোকাবিলা করার পর চীন সরকারের তরফ থেকে অর্থনীতির উপর জোর দেওয়া হবে।

Related Articles