টাইমলাইনভারত

গালওয়ান ঘটনার পুনরাবৃত্তির পরিকল্পনায় রড আর বর্শা নিয়ে সোমবার রেজাং লা-তে এসেছিল চীনের সেনা

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ লাদাখ (India) সীমান্তে ভারত আর চীনের (China) মধ্যে উত্তেজনা লাগাতার বেড়েই চলেছে। সোমবারের ঘটনার পর আরও একবার দুই দেশের সেনা মুখোমুখি। প্যাংগং এর পাশে রেজাং লা-এ প্রায় ৪০ থেকে ৫০ চীনা জওয়ান রড আর বর্শা  নিয়ে ভারতের সীমান্তের পাশে এসেছিল। ওই এলাকায় ভারতীয় সেনার দখল আছে, কিন্তু চীনের ৪০ থেকে ৫০ জন সেনা ওই এলাকায় ভারতীয় সেনার সামনে চলে এসেছে। চীনের সেনার প্রচেষ্টা ছিল সেখান থেকে ভারতীয় জওয়ানদের হটিয়ে এলাকার কবজা নেওয়া। যদিও ভারতীয় জওয়ানরা চীনের এই স্বপ্ন পূরণ হতে দেয় নি।

File Pic

আপনাদের জানিয়ে দিই, সোমবার রাতে চীন লাদাখ সীমান্তে ফায়ারিং করে। চীন পূর্ব লাদাখে (ladakh) সোমবার রাতে শুধু পরিস্থিতি বদলেরই চেষ্টা করেনি, তাঁরা ভারতীয় সেনা জওয়ানদের উস্কানোর জন্য হাওয়ায় ফায়ারিংও করেছিল। শুধু তাই নয়, চীন ভারতীয় সেনার বিরুদ্ধে সীমান্ত অতিক্রম করার মিথ্যে অভিযোগও করেছে। চীনের মুখোশ খুলতে ভারতীয় সেনা মঙ্গলবার বয়ান জারি করে। ভারতীয় সেনা জানিয়েছে যে, চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মি এগিয়ে আসার জন্য উস্কানিমূলক গতিবিধি চালাচ্ছে। ভারত জানায়, আমরা শান্তি বজায় রাখতে চাই। তবে আমাদের দেশের দিকে আঙুল তুললে আমরা সবরকম পদক্ষেপ নিতে তৈরি।

বয়ান জারি করে সেনা জানায়, ‘চীন নিজের দেশের মানুষ আর আন্তর্জাতিক স্তরে সবাইকে ভুল বোঝানর চেষ্টা করছে। ভারত বাস্তবিক নিয়ন্ত্রণ রেখায় চীনের সেনাক পিছু হটাতে আর পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার জন্য প্রতিবদ্ধ। আরেকদিকে চীন এগিয়ে আসার জন্য উস্কানিমূলক গতিবিধি চালাচ্ছে। ভারতীয় সেনা LAC পার করে নি আর না গুলি চালিয়েছে।”

সেনা জানায়, ‘সাত সেপ্টেম্বর চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মি আমাদের ফরোয়ার্ড পোস্টের পজিশনের পাশে পৌঁছানর চেষ্টা করে। আমাদের জওয়ানরা তাঁদের আটকালে, তাঁরা আমাদের জওয়ানদের উসকানি দিতে হাওয়ায় ফায়ারিং করে।”

ভারতীয় সেনা জানায়, ‘পিপলস লিবারেশন আর্মি বারবার চুক্তির লঙ্ঘন করছে আর আক্রমণাত্বক সামরিক অভ্যাস করছে। তাঁদের উসকানির পরেও আমাদের জওয়ানরা ধৈর্য আর শান্তি বজায় রেখেছে। আমরা শান্তি আর পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার জন্য প্রতিবদ্ধ। কিন্তু জাতীয় অখণ্ডতাকে চ্যালেঞ্জ জানালে আমরাও তাঁদের যোগ্য জবাব দেবো।”

Back to top button