আন্তর্জাতিকটাইমলাইন

কপাল পুড়ল চীনের! কম দামে সম্পত্তি বিক্রি করে পলায়ন করছে চীনা নাগরিকরা

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ আন্তর্জাতিক মহলে জমি মাফিয়া চীন (China) একপ্রকার কোণঠাসা হয়ে রয়েছে। প্রতিবেশি দেশের উপর জুলুম বাজি থেকে শুরু করে, করোনা ভাইরাসের প্রকাশ, আবার বর্তমান সময়ে ভারতের সঙ্গে সীমা বিবাদ, সবকিছু মিলিয়ে চীনা রাষ্ট্রপতি জিনপিং বেশ বিপাকেই রয়েছেন।

ঘুম উড়ছে চীনা নাগরিকদের
এই সংকটের পরিস্থিতিতে আরও এক দুঃস্বপ্নে চীনা নাগরিকদের ঘুম উড়তে বসেছে। চীন সরকার যেমন অন্য দেশের জমি হাতিয়ে নেওয়ার তালে থাকে, তেমনই চীনা নাগরিকরা বিদেশে জমি কিনতে পছন্দ করেন। আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া, ব্রিটেন এমনকি মালেয়শিয়াতেও (Malaysia) তাঁদের প্রচুর সম্পত্তি আছে। বর্তমান সময়ে বাড়তে থাকা উত্তেজনার মধ্যে এই মালেয়শিয়ায় জমি থাকা চীনা নাগরিকরা কিছুটা সংশয়ে পড়েছে।

‘Malaysia My Second Home’
মালেয়শিয়ায় প্রচুর পরিমাণে চীনা নাগরিক বসবাস করেন। এই সকল নাগরিকদের মালেয়শিয়ায় বিনিয়োগের কারণে ২০০২ সালে মালেয়শিয়ার সরকার MM2H ভিসা অর্থাৎ ‘Malaysia My Second Home’ চালু করেছিলেন। এই স্কীমের আয়ত্তায় ১০ বছরের জন্য ভিসা দেওয়া হয়েছিল। এই স্কীমের আয়ত্তায় হাজার হাজার চীনা নাগরিক মালেয়শিয়ায় জমি কিনে বসবাস করতে শুরু করে।

স্কীম বাতিল করছে মালেয়শিয়া সরকার
‘Malaysia My Second Home’ এই প্রকল্পের আয়ত্তায় ২০০২ সাল থেকে ২০১৮ সালের মধ্যে প্রায় ৪৪ হাজার বিদেশী নাগরিক মালেয়শিয়ায় বসবাস করতে শুরু করেন। যার মধ্যে প্রায় ৩০ শতাংশই চীনা নাগরিক। তবে গত বছর এই প্রকল্পের আবেদনকারীদের ৯০ শতাংশ খারিক করেছিল মালেয়শিয়া সরকার। বর্তমানে করোনার কারণ এই প্রকল্প সম্পূর্ণ বন্ধই করে দেওয়া হয়েছে।

হতে পারে শত্রুর সম্পত্তি
বর্তমান দিনে জাপান এবং ভারতের সঙ্গে চীনে উত্তেজনা যে হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং করে এশিয়ান দেশগুলির উপর চীনের আগ্রাসন মনোভাব বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়ার মত দেশগুলোর চীনের প্রতি বিরূপ মনোভাব জন্মাচ্ছে। চীনের প্রতি তারা ক্ষিপ্ত হয়ে উঠছে। এই পরিস্থিতিতে চীান নাগরিকদের যাদের সম্পত্তি মালেয়শিয়ায় রয়েছে, তারা সংশয়ে রয়েছে।

তাঁদের আশঙ্কা, চীন যেভাবে তাঁদের আক্রমণাত্মক মনোভাব নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে, তাতে করে যুদ্ধের পরিস্থিতি তৈরি হলে, চীনে ক্রয় করা তাঁদের সম্পত্তি চীনের বাকি সম্পত্তির মত ‘শত্রুর সম্পত্তি’ হিসাবে বাজেয়াপ্ত হয়ে যেতে পারে। সেই ভয়ে জলের দরে জমি বিক্রি করে চীনে পালিয়ে যাচ্ছে চীনা নাগরিকরা।

Back to top button