টাইমলাইনলাইফস্টাইল

কোল্ড ড্রিঙ্কস খাওয়ার ১ ঘন্টার মধ্যে আপনার শরীরে ঘটে ভয়ানক ঘটনা, কমতে থাকে আয়ু

বিয়ে বাড়ি বা জন্মদিন, কিটি পার্টি বা গেট টু গেদার সবকিছুতেই যেন কোল্ড ড্রঙ্কস আমাদের পছন্দের জিনিস। আর গরম পরতে না পরতেই অনেকে ইতিমধ্যে ফ্রিজে এনে রেখেছেন সফট ড্রিঙ্কস। তার মধ্যে স্কোয়াশ, ফলের রস এবং কোল্ড ড্রিঙ্কস এসব কিছুই থাকে। কিন্তু এগুলো খাওয়ার ফলে শরীরে যে রোজ বিপদ বাসা বাধছে তা বুঝতে অনেক দেরি হয়ে যাচ্ছে। বলা যায় তা আমাদের খুব ক্ষতি করছে নিশব্দে । কিন্তু আমরা তা বুঝতে পারছি না।সোডিয়াম মনগুলুটামিন, পটাশিয়াম সরবেট, ব্রমিনেটেড ভেজিটেবল অয়েল, মিথাইল বেঞ্জিন, সোডিয়াম বেনজোযেট,এন্ডোসালফান  এগুলি থাকে যা আমাদের শরীরে ক্যান্সারের কারন হয়ে দাড়াচ্ছে।

বলে রাখা দরকার কিছুদিন আগেই একটি জার্নালে প্রকাশিত গবেষণায় জানানো হয়েছে , যারা ঘন ঘন মিষ্টি কোমল পানীয় পান করেন তাদের স্মরণশক্তি কম হওয়ার পাশাপাশি মস্তিষ্কের ঘনত্বও কমতে পারে। আর স্মৃতিশক্তিও দুর্বল হতে পারে।গবেষকরা জানিয়েছেন তাদের ওপর মারাত্মক খারাপ প্রভাব পড়েছে। যারা এই পানীয় বেশি পান করেছেন, মানে দিনে অন্তত একটা, তাদেরও মস্তিষ্কের পরিমাণ কমতে দেখা গেছে।আর অনেকেই কথায় কথায় খেয়ে থাকেন কোল্ড ড্রিঙ্কস। কিন্তু এর ফলে যে কি ভয়ানক ক্ষতি হচ্ছে তা জানলে সবাই ভয় পেয়ে যাবেন। কোল্ড ড্রিঙ্কস খাওয়ার কয়েক মিনিটের মধ্যে আমাদের শরীরে যে পরিবর্তন হয় তার মধ্যে প্রথম ১৫ মিনিটে রক্তে শর্করার মাত্রা বেড়ে যাতে থাকে। আর এর ফলে লিভার শরীরের যে কোনও অংশে সঞ্চিত ফ্যাটকে গলিয়ে দিতে শুরু করে। তাতে খুব মারাত্মক ক্ষতি হয়।

আবার ২৫ মিনিটের মাথায় অন্য রকমের পরিবর্তন হয়, শরীরে ক্যাফিন শুষে নেয়, আর এর ফলে রক্তচাপ বৃদ্ধি পায়, লিভারের মাধ্যমে রক্তে শর্করা মিশতে শুরু করে তাতে আমাদের প্রচন্ড ক্ষতি হয়। বাকি ৪০ মিনিটের মধ্যে মেটাবলিজম আবার হঠাত করে অনেকটা বেড়ে যায়। তা শরীরের জন্য খুব ক্ষতিকর।

 

 

Back to top button