টাইমলাইনকলকাতা

অক্সিজেন নল ছিঁড়ে মৃত্যুসজ্জায় থাকা বৃদ্ধ ফোন করলেন বাড়িতে, মৃত্যুর পর উঠল হাসপাতাল গাফিলতির অভিযোগ

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ ফিরছে গতবছরের আতঙ্কের স্মৃতি। করোনা সংক্রমণে জেরবার গোটা দেশ। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। এই পরিস্থিতিতে আবারও খাস কলকাতায় এনআরএস হাসপাতালের বিরুদ্ধে উঠল চিকিৎসা গাফলতির অভিযোগ।

অভিযোগ উঠেছে, এন্টালির বাসিন্দা ৬৮ বছর বয়সী স্বপন দাস দিন কয়েক আগেই শ্বাসকষ্টের কারণে এনআরএস হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। বুধবার তাঁর অক্সিজেন নল ছিঁড়ে যাওয়ায় কাউকে পাশে না পেয়ে নিজের ছেলেকে ফোন করেন বৃদ্ধ। ফোনে ছেলে সোহমকে তিনি জানান, ‘এখানে আমাকে দেখাশোনা করার কেউ নেই। আমার অস্কিজেন নল খুলে গেছে। আমি আর বাঁচব না, মারা যাচ্ছি’।

বাবার ফোন পাওয়া মাত্রই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে ফোন করেন সোহম। কিন্তু তাঁরা জানান, ‘দেখছি’। এরপর স্বপনবাবুর পরিবার হাসপাতালে গেলে তাদের সঙ্গে ভিডিও কলে কথা বলানোর ব্যবস্থা করে দেন একজন নার্স। কিন্তু তখন তিনি অচৈতন্য থাকায় ঠিক করে কথা বলতে পারেননি বলে জানান তাঁর ছেলে।

বুধবারে এই ঘটনার পর বৃহস্পতিবার দুপুরে মারা যান স্বপন বাবু। এরপরই পরিবারের অভিযোগ হাসপাতালের গাফিলতিতেই মারা গিয়েছেন তিনি। কোভিড ওয়ার্ডে থাকা একজন রোগীর কাছে মোবাইল গেল কিভাবে? কিবভাবেই বা তাঁর খবর বাইরে গেল? কেন তাঁর ঠিকমত চিকিৎসা করা হয়নি? নানারকম প্রশ্ন তুলে হাসপাতালের গাফিলতির দিকেই আঙ্গুল তুলেছেন পরিবারের লোকজন।

Back to top button