টাইমলাইনভারতরাজনীতি

কংগ্রেস নেতাদের সাজানো হয়েছিল লাদাখের জনগণ, ফাঁস হতেই বিপাকে রাহুল গান্ধী

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi) এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi) মধ্যেকার রাজনৈতিক তর্জা আবারও তুঙ্গে। নিজের দেওয়া চালে নিজেই বেমালুম ঘোল খেলেন রাহুল গান্ধী। প্রধানমন্ত্রীকে জব্দ করতে গিয়ে, উল্টে নিজেই ঘায়েল হলেন। সেই সঙ্গে বাড়ল দল মধ্যস্থ চাপ।

প্রধানমন্ত্রীর লাদাখ সফর
লাদাখে ভারত চীন সীমা বিবাদের জেরে বেশ কিছুদিন ধরেই উত্তপ্ত রয়েছে রাজনৈতিক মহল। এই পরিস্থিতিতে শুক্রবার আচমকাই লাদাখে উড়ে গেছিলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। সেখানে গিয়ে বেশ কিছুটা সময় কাটান তিনি। এমনকি আহত জওয়ানদের সঙ্গে দেখাও করেন। প্রধানমন্ত্রীর এই লাদাখ সফরে বেশ কিছুটা জোর পেলেন ভারতের সেনাবাহিনীর জওয়ানরা।

বিপাকে রাহুল
এই ঘটনার মধ্যেই কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে মিথ্যাবাদী প্রমাণ করতে নিজের ট্যুইটার হ্যান্ডেল থেকে একটি ভিডিও পোস্ট করনে। যেখানে বেশ কয়েকজন লাদাখির কিছু বক্তব্য উঠে এসেছে। যার জেরেই তিনি প্রধানমন্ত্রীকে ফের কাঠগড়ায় দাঁড় করাতে চেয়েছিলেন। কিন্তু শেষ রক্ষা হল না। নিজের গুগলি নিজের দিকে বাউন্স খেয়ে ফিরে আসল।

ভিডিওটিওতে দেখা যাচ্ছে, বেশ কয়েকজন লাদাখের মানুষ জানাচ্ছেন, চীন নাকি লাদাখের বেশ কিছু এলাকা দখল করে নিয়েছে। শেয়ার করার পর থেকে রিট্যুইট এবং লাইকের বন্যা বয়ে যায় ভিডিওটিতে। ১৩ হাজার রিট্যুইট এবং ৩৪ হাজার লাইকও পড়ে গিয়েছে ইতিমধ্যেই।

সত্যতা যাচাই
ভিডিওতে থাকা লাদাখবাসীর বিষয়ে খোঁজ নিতে গিয়ে দেখা যায়, কেঁচো খুঁড়তে কেউটে বেরিয়ে এল। লাদাখি কোথায়, এরা সকলেই তো কংগ্রেসের কংগ্রেসের বা শাখা সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিত্ব। তারা হলেন, নামগ্যাল দুরবুক (কংগ্রেসের প্রাক্তন কাউন্সিলর), দোর্জয় গ্যালস্টন (লেহ ইউনিটের জেলা যুব কংগ্রেসের ওয়ার্কিং প্রেসিডেন্ট), তুন্ডুপ নুবু (লাদাখের কংগ্রেসের যুব শাখার সাধারণ সম্পাদক), ডঃ ইশে নামগাল (লাদাখ মিউনিসিপ্যাল কমিটির সভাপতি), সচিন মেরুপা (হিমাচল প্রদেশের কংগ্রেসের ছাত্র শাখার সাধারণ সম্পাদক)। জারুজুরি প্রকাশ্যে আসার পর থেকে বিপাকে এখন খোদ রাহুল গান্ধী।

Back to top button