টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গবিধানসভা নির্বাচন

শীতলকুচিতে ৪ জনকে নয় বাহিনীর উচিৎ ছিল ৮ জনকে গুলি মারা! এবার বিতর্কে রাহুল সিনহা

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ কোচবিহারের শীতলকুচি গুলি কাণ্ডে বিতর্কিত মন্তব্য করে এখনও শিরোনামে আছেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। তাঁর ‘বেশি বাড়াবাড়ি করলে শীতলকুচি’ মন্তব্য ঘিরে তুমুল বিতর্ক শুরু হয়েছে রাজ্য রাজনীতিতে। ইতিমধ্যেই তৃণমূলের তরফে দিলীপ ঘোষের এহেন মন্তব্যে তাঁর গ্রেফতারির দাবি তোলা হয়েছে। এর মাঝে সেই বিতর্কে ঘি ঢালল রাহুল সিনহা (Rahul Sinha)।

গতকাল ভোট প্রচার শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে রাহুল সিনহা বলেন, ‘ঝামেলা পাকাতে এলে কি হাল হবে, তার নিদর্শন শীতলকুচি। আবার করলে আবারও উচিৎ জবাব দেবে বাহিনী।’ এমনকি তিনি এও বলেন, ‘শীতলকুচিতে কেন যে কেন্দ্রীয় বাহিনী ৪ জনকে গুলি করল! ৮ জনকে করতে পারত। তার জন্য বাহিনীকে (Central Force) শোকজ করা উচিৎ’। রাহুল সিনহার এদিনের মন্তব্য ফের তুমুল বিতর্কের জন্ম দিয়েছে রাজনৈতিক মহলে।

এদিন শীতলকুচি গুলিকাণ্ডে রাহুল সিনহাকে প্রশ্ন করা হলে তিনি আরও বলেন, ‘ভোটের লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা একটি নিরীহ ছেলে, যাকে শুধু বিজেপি করার অপরাধে গুলি করা হল, তাঁদের নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, বোমা মেরে বাহিনীদের আটকানোর চেষ্টা চালাচ্ছে, তাঁদের নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)।’ এখানেই থেমে না থেকে রাহুল আরও বলেন, ‘তৃণমূল গুণ্ডারাজ কায়েম করতে চেয়ে মানুষের গনতান্ত্রিক অধিকার খর্ব করছে’ মমতার দিন শেষ হয়ে এসেছে। তারপরই এদিনের বিতর্কিত মন্তব্যের জন্ম দেন রাহুল সিনহা।

Rahul Sinha on Sitalkuchi Firing: '৪ নয়, শীতলকুচিতে ৮ জনকে গুলি করে মারা উচিৎ ছিল!' এবার বিতর্কে রাহুল সিনহা

তবে তৃণমূলের তরফে রাজ্যের মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক (Jyotipriyo Mullick) বলেন, ‘রাহুল সিনহা পাগল হয়ে গিয়েছেন, নিজের চরম শত্রুকেও এভাবে মেরে ফেলার কথা বলা যায়না। তারপরই রাহুল সিনহার বিরোধী তৃণমূল (TMC) প্রার্থী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক এও বলেন, রাহুল সিনহা পাগল হয়ে গেছেন। উনি ভোটে কখনও জেতেননি। এবার আরও রেকর্ড ব্যবধানে হারবেন।

উল্লেখ্য, কোচবিহারের (Cooch Behar)  শীতলকুচিতে (Sitalkuchi) বাহিনীর গুলিতে চার জনের প্রাণ গিয়েছে। তৃণমূলের তরফে এরজন্য অমিত শাহের (Amit Shah) চক্রান্তের অভিযোগ এনে, তাঁর পদত্যাগের দাবি জানানো হয়েছে, অন্যদিকে এদিন রাজ্যে এসে আমিত শাহ পাল্টা দিয়ে বলেন, ‘তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উস্কানিই তেই এদিনের গুলিকাণ্ড’।

Related Articles

Back to top button