টাইমলাইনবিনোদন

প্রাক্তন প্রেমিকের উপর ‘কালা জাদু’ বা হৃতিককে নগ্ন ছবি পাঠানো, বিতর্কে ভরা জীবন কঙ্গনার

বাংলাহান্ট ডেস্ক: অভিনয় জগতে তিনি ‘কুইন’। বলিউডে বলা যায় নিজের আলাদা একটি ব্র্যান্ড তৈরি করে নিয়েছেন তিনি। ঠিক ধরেছেন, বলি কুইন কঙ্গনা রানাওয়াতের (kangana ranawat) কথাই বলা হচ্ছে। অভিনয়ে তাঁর প্রতিভা নিয়ে নতুন কিছু বলার নেই। কুইন, মণিকর্ণিকা, তনু ওয়েডস মনু, জাজমেন্টাল হ্যায় কেয়া একের পর এক ছবিতে নিজের অভিনয় দক্ষতা তুলে ধরেছেন কঙ্গনা।
কিন্তু অভিনয় জগতে নাকি প্রথমে আসার কথাই ছিল না কঙ্গনার। ছোটবেলায় ডাক্তার হওয়ার স্বপ্ন দেখতেন তিনি। কিন্তু রসায়নে ফেল করার পরই পড়াশোনায় ইস্তফা দিয়ে মডেলিং শুরু করেন কঙ্গনা। ২০১৬ তে গ‍্যাংস্টার ছবি দিয়ে বলিউডে আত্মপ্রকাশ করেন তিনি‌।
ইন্ডাস্ট্রিতে প্রবেশ করে বেশ কয়েকটি সম্পর্কে জড়িয়েছেন কুইন অভিনেত্রী। কখনও আদিত‍্য পাঞ্চোলি কখনও হৃতিক রোশনের সঙ্গে নাম জড়িয়েছে তাঁর। বলিউডে পা রাখার সময় নাকি আদিত‍্যর বাড়িতেই থাকতেন তিনি। শোনা যায়, বিবাহিত হওয়া সত্ত্বেও আদিত‍্যর সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন কঙ্গনা। কিন্তু বেশ কয়েক বছর পর হঠাৎ এই সম্পর্কে ভাঙন ধরলে পুলিসের কাছে আদিত‍্যর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন অভিনেত্রী। তিনি অভিযোগ করেন তাঁকে শারীরিক অত‍্যাচার করেছেন আদিত‍্য।


কঙ্গনার দ্বিতীয় প্রেমিক অধ‍্যয়ন সুমন অভিযোগ করেন তাঁর পরিবারের উপর নাকি কালা জাদু করেছেন কঙ্গনা। এমনকি ‘ওয়ান্স আপন আ টাইম ইন মুম্বই’ ছবির শুটিংয়ের সময় অজয় দেবগণের সঙ্গেও নাকি সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন তিনি। পরে কাজলের সঙ্গে বিবাদ হওয়ায় কঙ্গনার থেকে মুখ ফিরিয়ে নেন অজয়। একসঙ্গে আর ছবি করবেন না বলেও ঠিক করেন তিনি।
একটা সময় হৃতিক ও কঙ্গনার বিরোধ চরমে উঠেছিল। প্রায়দিনই শিরোনামে থাকত হৃতিক ও কঙ্গনার বিরোধের সংবাদ। কঙ্গনা বারংবার দাবি করেছেন তাঁর সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছেন অভিনেতা। কিন্তু কোনওদিনই সর্বসমক্ষে তা দাবি করেননি। অভিনেত্রীর অভিযোগ ছিল, ‘কৃষ টু’ এর শুটিং চলাকালীনই তাঁর প্রেমে পড়েন হৃতিক। কিন্তু তা কোনওদিনই সবার সামনে স্বীকার করার সাহস ছিল না তাঁর। তিনি এও জানান, স্ত্রী সুজানকে ছেড়ে কোনওদিনই কঙ্গনার কাছে আসতে পারবেন না তিনি। এরপর কঙ্গনা তাঁকে বলেন, সুজানকে বিচ্ছেদ দিতে না পারলে তাঁকে মুক্তি দিন হৃতিক। কিন্তু তাতেও রাজি ছিলেন না অভিনেতা।


কঙ্গনা আরও দাবি করেন সুজানের সঙ্গে আচমকাই সম্পর্ক ছিন্ন করার পর ফের কঙ্গনাকে বিয়ের প্রস্তাব দেন হৃতিক। উপরন্তু তিনি আর ও হুমকি দেন তাঁর প্রস্তাবে রাজি না হলে তাঁর সঙ্গে কাটানো কঙ্গনার সব গোপন মুহূর্তের ছবি ফাঁস করে দেবেন। তবে এই সব অভিযোগই অস্বীকার করেন হৃতিক।
বলিউডে নেপোটিজম নিয়েও প্রথম থেকেই সরব হয়েছেন কঙ্গনা। ইন্ডাস্ট্রিতে সেক্ষেত্রে তাঁর কোনও গডফাদার ছিল না। করন জোহরের সঙ্গে তাঁর আদায় কাঁচকলায় সম্পর্কের কথা সবাই জানেন। কিন্তু ভয় পেয়ে কোনওদিনই চুপ করে থাকেননি কঙ্গনা। সম্প্রতি তিনি অভিযোগ করেন মুখ‍্যমন্ত্রীর ছেলের বিষয়ে মন্তব‍্য করার জন‍্য তাঁর বাড়ির সামনে গুলি চালিয়ে ভয় দেখানো হয়েছে। কিন্তু তাও তিনি বলা থামাবেন না বলে জানিয়েছেন কঙ্গনা।

Back to top button
Close