টাইমলাইনভারত

ভোজ্য তেল ও গমের দাম নিয়ে কেন্দ্রের বড় ঘোষণা! খুশির হাওয়া গোটা দেশজুড়ে

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ বিগত বেশ কয়েক মাস ধরে ক্রমবর্ধমান মূল্যস্ফীতির কারণে জীবন ওষ্ঠাগত হয়ে উঠেছিল সমগ্র দেশবাসীর। প্রয়োজনীয় তেল, চাল, গম থেকে শুরু করে অন্যান্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম হু-হু করে বেড়ে চলায় মাথায় হাত পড়ে মধ্যবিত্তের। তবে এবার ধীরে ধীরে অনেকাংশে স্বস্তি মিলছে তাদের। বর্তমানে কেন্দ্র সরকারের একটি ঘোষণা তাদের স্বস্তি আরো বহুগুণে বাড়িয়ে দিলো। আন্তর্জাতিক বাজারে মূল্য হ্রাস এবং সরকারের পদক্ষেপের কারণে বর্তমানে খাবারের তেলের দাম সহ গমের দাম অনেকটাই কমেছে বলে ঘোষণা করল কেন্দ্র।

এদিন খাদ্য সচিব সুধাংশু পান্ডে জানান, “জুন মাসের শুরু থেকে সকল প্যাকেটজাত ভোজ্যতেলের দাম 15 থেকে 20 টাকা পর্যন্ত কমেছে। অতীতে তেলের দাম যেখানে দুশো টাকার ওপর উঠে গিয়েছিলো, সেখানে বর্তমানে প্রতি কেজিতে এই তেলের দাম 150 থেকে 190 টাকায় নেমে এসেছে; যা দেশের মানুষকে স্বস্তি দেবে।”

উল্লেখ্য আদানি উইলমার এবং মাদার ডেয়ারি, দুই কোম্পানি দ্বারাই তেলের দাম কমানো হয়েছে। বিগত বেশ কয়েক দিনে সাধারণ মানুষকে স্বস্তি দিয়ে 10 থেকে 15 টাকা পর্যন্ত দাম কমিয়েছে তারা। অতীতে আদানি উইলমার কোম্পানির অয়েলের দাম যেখানে 205 টাকা পর্যন্ত পৌঁছে গিয়েছিল, বর্তমানে সেই দাম 10 টাকা কমে দাঁড়িয়েছে 195। অপরদিকে, মাদার ডেয়ারির তেলের দাম প্রতি কেজি 15 টাকা পর্যন্ত কমিয়েছে বলে খবর।

এছাড়াও খাদ্য সচিব বলেন, “ভারতে আটা এবং ময়দার দাম ক্রমহ্রাসমান। কেন্দ্র সরকারের নেওয়া একাধিক পদক্ষেপের মাধ্যমে গমের দামের ওপর আমরা নিয়ন্ত্রণ আনতে পেরেছি।”

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি মহারাষ্ট্র, রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ এবং গুজরাটের মতো রাজ্যগুলিতে সরকার দ্বারা একাধিক অভিযান চালানো হয়। এক্ষেত্রে 43 অভিযান চালানো হয় বাণিজ্যনগরীতে। এছাড়াও রাজস্থানে 7 টি, গুজরাটে 48 এবং মধ্যপ্রদেশের সব মিলিয়ে 35 টি অভিযান চালানো হয়। এসকল অভিযান কালোবাজারী রুখতেই করা হয় বলে জানা গিয়েছে। উল্লেখ্য, এই সকল অভিযান মিলিয়ে মহারাষ্ট্রে 16, রাজস্থানের 13, এবং গুজরাটে 7 টি ডিফল্ট মামলা সামনে আসে। এই প্রসঙ্গে খাদ্য সচিব বলেন, “তেল সহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম নিয়ন্ত্রণে বর্তমান সরকার তৎপর হয়ে উঠেছে। সাধারণ মানুষকে স্বস্তি পৌঁছে দেয়াই আমাদের লক্ষ্য।”

Related Articles

Back to top button