টাইমলাইনভারত

সুখবরঃ এখনো পর্যন্ত গোটা ভারতে মোট দশজনকে করোনাভাইরাস থেকে সম্পূর্ণ সুস্থ করে তোলা হয়েছে

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ বিশ্ব স্বাস্থ সংগঠন (WHO) করোনা (Corona) কে মহামারি ঘোষণা করে দিয়েছে। দেশে করোনায় আক্রান্তদের সংখ্যা বেড়ে ৭৬ হয়েছে। দিল্লী, উত্তর প্রদেশ আর মধ্যপ্রদেশ সমেত অনেক রাজ্য ৩১ মার্চ পর্যন্ত স্কুল আর কলেজে ছুটি ঘোষণা করে দিয়েছে। সরকার করোনার কারণে সেনায় আগামী এক মাসের জন্য ভর্তি স্থগিত রেখেছে। করোনা থেকে বাঁচার জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সার্ক কান্ট্রি (SAARC) গুলোর প্রধানদের সাথে মিলে রণনীতি বানানোর জন্য গতকাল একটি ভিডিও কনফারেন্স করেন।

আর এরই মধ্যে গোটা বিশ্বে মহামারি হয়ে যাওয়া করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে ভারতের একটি ইতিবাচক পদক্ষেপ সঞ্জীবনী বুটি প্রমাণ হতে পারে। জয়পুরে ভারতীয় ডাক্তাররা করোনায় আক্রান্ত ইতালি থেকে আসা দম্পতিদের রেট্রোভাইরাল ওষুধ দিয়ে সফল চিকিৎসা করেছে। যদিও এখনো পর্যন্ত ওষুধের প্রভাবের পরীক্ষা চলছে, ফলাফল যদি আশানরুপ হয় তাহলে মহামারি করোনার বিরুদ্ধে এটাই ভারতের সঞ্জীবনী ফর্মুলা হবে।

সুত্র থেকে পাওয়া খবর অনুযায়ী, জয়পুরের ওই হাসপাতালে ইতালি দম্পতির চিকিৎসার পর আরও একজন বৃদ্ধের  করোনা নিয়ে চিকিৎসা করা হয়েছে। ওই বৃদ্ধের বয়স ৮৫। সুত্রের খবর অনুযায়ী গোটা ভারতে এখনো পর্যন্ত ১০ জনকে করোনাভাইরাস থেকে সম্পূর্ণ সুস্থ করা হয়েছে।

গোটা বিশ্বের প্রতিটি দেশ এখনো পর্যন্ত করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন তৈরি করতে বিফল হয়েছে, এমনও খবর পাওয়া যাচ্ছে যে আজ থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে করোনার টিকা দেওয়া হবে। একটি জার্মানি সংস্থা ওই টিকা বানিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। আর আমেরিকা সেই টিকা কিনে নিয়েছে। আজ আমেরিকার এই পরীক্ষা সফল হলে করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য রামবাণ প্রমাণিত হবে।

ইতালি থেকে ভারতে আসা দম্পতিদের চিকিৎসায় লোপিনাবির আর রেট্রোভাইরাল কম্বিনেশন এর ওষুধের ব্যবহার করা হয়েছে। এই দম্পতি জয়পুরে আসার পর চিকিৎসায় তাঁদের শরীরে করোনা ভাইরস পাওয়া গেছিল। ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিকেল রিসার্চ (Indian Council Of Medical Research) অনুযায়ী, ১৪ দিনের চিকিৎসার পর দম্পতির শারীরিক অবস্থার উন্নতি ঘটে।

Back to top button