টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

‘এটা ইনকিলাব স্যার” লাল কেল্লার তাণ্ডবে অভিযুক্তের ভিডিও পোস্ট করে বলেছিলেন CPIM নেতা সূর্যকান্ত মিশ্র

কলকাতাঃ গতকাল দিল্লীতে শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের নামে যেই কাণ্ড ঘটেছে সেটা নিয়ে আমরা সবাই অবগত। দিল্লীর লাল কেল্লাতেও উৎপাত করতে ছাড়েনি উপদ্রবিরা। লাল কেল্লার ভিতরে ঢুকে বিভিন্ন আসবাব পত্র ভেঙে ফেলেছে উন্মাদী ভিড়। উপড়ে ফেলা হয়েছে সিসিটিভিও। এছাড়াও লাল কেল্লার সামনে নিজেদের পতাকা তুলে তুমুল বিতর্ক সৃষ্টি করেছে কৃষকেরা।

এই ঘটনার পর সংযুক্ত কৃষক মোর্চার তরফ থেকে বয়ান জারি করে বলা হয়েছে যে, তাঁদের শান্তিপূর্ণ র‍্যালিতে উপদ্রবিরা ঢুকে পড়েছিল। উপদ্রবিরাই নির্ধারিত রুট পাল্টে দিয়ে দিল্লীতে ঢুকে তাণ্ডব চালায় আর লাল কেল্লায় নিজেদের পতাকা তোলে। কৃষক সংগঠনের তরফ থেকে এই অশান্তির দায়ে তাঁদের দলে ঢুকে পরা সমাজ বিরোধীদের উপর চাপানো হয়েছে।

এরপরই সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও ভাইরাল হয়, যেখানে পাঞ্জাবি অভিনেতা দীপ সিধুকে লাল কেল্লার সামনে দেখা যায়। ওই ভিডিওতেই লাল কেল্লার সামনে পতাকা তুলতে দেখা যায় কৃষকদের। এরপর থেকেই দীপ সিধুকে এই ঘটনার মূলচক্রী হিসেবে বলা হয়। সেই উস্কানি দিয়ে এই কাজ করেছিল বলে দাবি করা হয়।

এরপরই দীপ সিধুর সাথে সানি দেওল আর প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। সেখানে দাবি করা হয় যে, দীপ সিধু বিজেপির এজেন্ট। আর বিজেপিই তাঁকে শান্তিপূর্ণ কৃষক আন্দোলনে অশান্তি ছড়ানোর জন্য পাঠিয়েছিল। যদিও বিজেপির সাংসদ সমস্ত অভিযোগ খারিজ করে জানান যে, দীপ সিধুর সাথে তাঁর কোনও যোগ নেই।

আরেকদিকে, বামেদের বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় গ্রুপ আর পেজে সানি দেওল আর নরেন্দ্র মোদীর সাথে দীপ সিধুর ছবি ভাইরাল করা হয়। তাঁরা দাবি করে যে, প্রধান অপরাধী দীপ সিধু বিজেপির হয়ে কাজ করে গতকাল দিল্লীতে অশান্তি ছড়িয়েছিল।

এরপরই সোশ্যাল মিডিয়ায় সিপিএম-এর রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্রর পুরনো একটি পোস্ট ভাইরাল হয়, যেখানে সূর্যকান্ত মিশ্রকে দীপ সিধুর ভিডিও শেয়ার করতে দেখা গিয়েছে। পোস্টে সূর্যকান্তবাবু লিখেছিলেন, ‘”Ye inquilab hai sir, ye revolution hai” “এটা ইনকিলাব স্যার, এটা বিপ্লব” কৃষকরা ছ-মাসের রসদ নিয়ে বেরিয়েছেন। কৃষক মারা কৃষি বিল ফেরত না নেওয়া অবধি ঘেরাও থাকবে দেশের রাজধানী । ছ-মাস লাগুক কি কয়েক বছর, তৈরি কৃষক, নিজের অধিকার বুঝে নিতে। #StandWithFarmers”

এখন বিজেপির তরফ থেকে প্রশ্ন তোলা হচ্ছে যে, যেই দীপ সিধু এতদিন কৃষকদের নয়নের মণি ছিলেন। যাকে নিয়ে বামেরা গর্ব করে পোস্ট করতেন। আচমকাই সে বিজেপির এজেন্ট হয়ে গেল কি করে? যদিও ভিডিওতে দেখা ব্যক্তি আদৌ দীপ সিধু কিনা, সেটা আমাদের পক্ষে যাচাই করা সম্ভব হয়নি।

Back to top button