টাইমলাইনভারতখেলাআন্তর্জাতিকক্রিকেট

তিন ভারতীয় তারকা যারা ধোনির আমলে ছিলেন সুপারস্টার, কিন্তু কোহলি আসতেই হারিয়ে যান অন্ধকারে

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ মহেন্দ্র সিংহ ধোনি ভারতের এমন একজন ক্যাপ্টেন যারা আমলে তিন তিনটি আইসিসি ট্রফি জয় করেছিল ভারতীয় দল। শুধু তাই নয়, খেলোয়াড়দের তৈরি করার ক্ষেত্রেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছিলেন মাহি। তার আমলে একদিকে যেমন দলের সিনিয়র খেলোয়াড়রাও দুরন্ত পারফরম্যান্স উপহার দিয়েছিলেন তেমনি অনেক তরুণ খেলোয়াড়দেরও তৈরি করেছিলেন তিনি। যার মধ্যে অন্যতম বিরাট কোহলি নিজেই। তবে কোহলির ক্যাপ্টেন্সিতে এমন অনেক খেলোয়াড়ই ভালো পারফরম্যান্স উপহার দিতে পারেননি যারা ধোনির আমলের ছিলেন সুপারস্টার। যদিও কোহলিও অনেকেই তৈরি করেছেন তাদের মধ্যে অবশ্যই প্রথমে উঠে আসে জসপ্রীত বুমরার নাম। আজ আসুন জেনে নেওয়া যাক এমন তিন খেলোয়াড়ের কথা যারা মহেন্দ্র সিং ধোনির আমলে ছিলেন সুপারস্টার কিন্তু ব্রাত্য হয়ে পড়েন কোহলির অধিনায়কত্বে।

রবীচন্দ্রন অশ্বিনঃ

সীমিত ওভারের ক্রিকেট হোক বা টেস্ট ক্রিকেট রবীচন্দ্রন অশ্বিনকে নানা ভাবে ব্যবহার করেছেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। কার্যত ক্রিকেটীয় ভাষায় ধোনির গো টু বোলার ছিলেন অশ্বিন। কিন্তু এই মুহূর্তে কোহলির অধিনায়কত্বে সীমিত ওভারের ক্রিকেট থেকে প্রায় ব্রাত্য হয়ে পড়েছেন তিনি। অথচ ধোনির আমলে ৭৮ টি ওয়ানডেতে ১০৫ টি উইকেট সংগ্রহ করেছিলেন রবীচন্দ্রন অশ্বিন। একইসঙ্গে ৪২ টি টি-টোয়েন্টি খেলে নিয়েছিলেন ৪৯ টি উইকেট। অন্যদিকে কোহলির অধিনায়কত্বে দেখতে গেলে মাত্র ২০ টি একদিনের ম্যাচ খেলে ২৫ টি উইকেট শিকার করেছিলেন এই অফস্পিনার। যদিও মনে করিয়ে দিই এই মুহূর্তে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য ফের একবার ভারতীয় দলে ডাক পেয়েছেন তিনি। কার্যত চার বছর বাদে ফের একবার সীমিত ওভারের ক্রিকেটে কামব্যাক করছেন এই তারকা।

সুরেশ রায়নাঃ

মিস্টার আইপিএল সুরেশ রায়না কার্যত সকলের কাছে সুপরিচিতই হয়ে উঠেছিলেন ধোনির অধিনায়কত্বে। তার গুরুত্বপূর্ণ অফ স্পিন বোলিং, বিধ্বংসী বাঁহাতি ব্যাটিং ছিল ধোনির দলের অন্যতম ইউএসপি। ধোনির অধীনে মোট ২২৮ টি একদিনের ম্যাচে ৬২২৮ রান সংগ্রহ করেছিলেন এই ব্যাটসম্যান। কিন্তু তাকেও ক্রমশ অস্তমিত হয়ে পড়তে দেখা যায় কোহলির ক্যাপ্টেন্সিতে। কোহলির অধিনায়কত্বে মাত্র ২৬টি ম্যাচ খেলেছেন
এই বিস্ফোরক বাঁহাতি ব্যাটসম্যান, সংগ্রহ করেছিলেন ৫৪২ রান। কিন্তু সেভাবে এরপর আর সুরেশ রায়নাকে ভারতীয় ক্রিকেটে কামব্যাক করতে দেখা যায়নি।

যুবরাজ সিংহঃ

সৌরভ গাঙ্গুলীর অধিনায়কত্বে ক্রিকেট জীবন শুরু করেছিলেন যুবরাজ। ২০০২ সালের ন্যাটওয়েস্ট ট্রফিতে তার অসামান্য পারফরম্যান্সের কথা এখনও ভুলতে পারবেন না কেউই। তবে ধোনির ক্যাপ্টেন্সিতেই একের পর এক বড় রেকর্ড স্থাপন করেন যুবরাজ। একদিকে যেমন ২০০৭ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ছটি ছক্কা সহ দুর্দান্ত পারফরম্যান্স দিয়েছেন তিনি, তেমনি ২০১১ বিশ্বকাপেও ছিলেন ম্যান অফ দ্যা টুর্নামেন্ট। এরপর অবশ্য ক্যান্সারের কারণে বেশ কিছুদিন ক্রিকেটের বাইরে চলে যান তিনি। তবে পরবর্তী ক্ষেত্রে ফিরে আসলেও কোহলির অধিনায়কত্বে নিজেকে আর সেভাবে তুলে ধরতে পারেননি যুবরাজ। তাই শেষ পর্যন্ত তাকে অবসর গ্রহণ করতে হয়।

 

Related Articles

Back to top button