fbpx
টাইমলাইনভারত

বিরল গ্রুপের রক্ত দান করে কাশ্মীরের নবজাতকের প্রাণ ফিরিয়ে দিলেন সিআরপিএফ এর জওয়ান

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ শ্রীনগরের বাচ্চা হাসপাতাল থেকে এক মানবতার নজির গড়া ঘটনা সামনে আসলো। ওই হাসপাতালে হান্ডওয়ারার এক পরিবারের মনোবল ভেঙে গেছিল, কারণ তাঁদের নবজাত শিশুর রক্তের দরকার ছিল আর যেই ব্লাড গ্রুপের রক্ত লাগত সেই ব্লাড গ্রুপের রক্ত পাওয়া খুবই দুস্কর। ওই শিশুর পিতা পারভেজ আহমেদ অনেকের কাছেই সাহায্যের আবেদন জানিয়েছিলেন, কিন্তু O-ve গ্রুপের রক্ত কারোর কাছেই পাওয়া যাচ্ছিল না।

তখন পারভেজ জানতে পারল যে, সিআরপিএফ একটি হেল্পলাইন আছে যেখানে সবরক সাহায্য দেওয়া হয়। সেখানে প্রচুর মানুষের সমস্যার সমাধান হয়েছে বলে জানতে পারেন তিনি। এরপর পারভেজ আহমেদ সেই হেল্প লাইনে কল করেন, আর নিজের সমস্যার কথা জানান। সিআরপিএফ এর হেল্প লাইন পারভেজকে সাহায্য করার জন্য তৎক্ষণাৎ কাজে লেগে পড়ে। তখন শ্রীনগরে মোতায়েন ৭৯ এর কমান্ডিং অফিসারের কাছে এই বার্তা পৌঁছায়, আর তৎক্ষণাৎ এর সমাধান করে দেয়। ওই ইউনিটে এক জওয়ানের রক্তের গ্রুপ ওই শিশুর সাথে ম্যাচ করে।

O-ve ব্লাড গ্রুপের ইনস্পেক্টর জ্ঞান চাঁদ তখনই হাসপাতালে যান আর ওই নবজাতককে রক্ত দিয়ে প্রাণ বাঁচান। জ্ঞান চাঁদ জানান, যদি আমার রক্ত কোন মানুষের কাজে লাগে, তাহলে আমি আরও রক্ত দিতে প্রস্তুত। জ্ঞান চাঁদ জানান, ‘এক শিশুর জন্ম হয়েছিল। তাঁর বাবা পারভেজ আলম আমাদের হেল্প ডেস্কে ফোন করেছিল সাহায্যের জন্য। বাচ্চার O-ve রক্তের গ্রুপের দরকার ছিল। আমি হাসপাতালে গিয়ে ৪৫০ এমএল রক্ত দিই। আমি খুবই খুশি যে, আমার রক্তের জন্য এক নবজাতকের প্রাণ বাঁচল।”

Back to top button
Close