টাইমলাইনভারত

মাও ডেরায় কাটালেন দুর্বিষহ ৫ দিন! ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতা নিজের মুখে শোনালেন জওয়ান রাকেশ্বর সিংহ

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ অপেক্ষা, ধৈর্য্য, উত্তেজনার মুক্তি ঘটিয়ে ছাড়া পেলেন মাওবাদী অপহৃত কোবরা জওয়ান রাকেশ্বর সিংহ মানহাস (rakeshwar singh manhas)। বৃহস্পতিবার মাওবাদীরা মুক্তি দেয় অপহৃত জওয়ান রাকেশ্বরকে।

ছত্তীসগড়ের (chattisgarh) বিজাপুরে মাওবাদী (naxal) হামলায় শহীদ হয়েছিলেন ২২ জন জওয়ান এবং আহত হয়েছিলেন ৩১ জন। তবে একজনকে অপহরণ করে নিয়ে গিয়েছিল মাওবাদীরা। এই হামলায় তোলপাড় হয়ে উঠেছিল গোটা দেশ। অবশেষে ছাড়া পেলেন কোবরা জওয়ান রাকেশ্বর সিংহ মানহাস।

পরিবারের ছোট্ট মেয়ে থেকে শুরু করে জওয়ানের স্ত্রী, মা সকলের চোখের অশ্রুধারা বাঁধ মানছিল না। সকলের করুণ আর্তি পৌঁছে গিয়েছিল সরকাররে কানেও। তারপর দুই শীর্ষস্থানীয় ব্যক্তিকে মাওবাদীদের সঙ্গে আলোচনার জন্য পাঠায় রাজ্য সরকার। তারপরই মুক্তি দেওয়া হয় জওয়ান রাকেশ্বরকে।

দুর্বিষহ এই গোটা ৫ দিন মাওবাদীদের ডেরায় কেমন ছিলনে জওয়ান রাকেশ্বর, নিজের মুখেই জানালেন সে কথা।

তিনি জানান, গত ৩ রা এপ্রিল সেনাদের সঙ্গে মাওবাদীদের সংঘর্ষের পর তিনি অজ্ঞান হয়ে পড়েন। এরপর ৪ ঠা এপ্রিল মাওবাদীরা চোখ বেঁধে তাদের ডেরায় নিয়ে যান জওয়ানকে। তবে জওয়ান জানান- মাওবাদীরা তাঁকে অপহরণ করার পর তাঁকে মুক্তি দেওয়ার ব্যাপারেও জানিয়েছিলেন। মাওবাদীরা বলেছিলেন, তাঁকে মুক্তি দিয়ে দেওয়া হবে।

জওয়ান আরও জানান, মাওবাদীরা তাঁকে কোন রকম নির্যাতন করেনি, এমনকি তাঁকে সময় মত খাবারও খেতে দিত। জওয়ানের থেকে পুলিশ বা তাদের কোন গোপন পরিকল্পনার বিষয়েও জানতে চায়নি নকশালরা। জওয়ানকে ছেড়ে দেওয়ার পর, তাঁকে চাকরী ছাড়ার বিষয়েও কোন শর্ত রাখেনি মাওবাদীরা।

Back to top button