টাইমলাইনভাইরালভিডিও

শহীদ বাবার শেষকৃত্যে ১০ বছরের মেয়ে দিল এমন শ্লোগান, শুনেই গর্বে বুক ফুলে উঠল দেশবাসীর

পাকিস্তান শুক্রবার দিন LOC এর ভিন্ন ভিন্ন স্থানে সিজ ফায়ার উলঙ্ঘন করেছিল। পাক সেনা মর্টার ও অন্যান্য হাতিয়ার ব্যাবহার করে ভারতের উপর টার্গেট করে গোলা দেগেছিল। এতে জম্মু কাশ্মীরের বারামুলাতে বিএসএফ সাব ইন্সপেক্টর রাকেশ দোভাল শহীদ হয়েছেন। ঋষিকেশে সৈন সম্মানের সহিত উনার শেষ কৃত্য সম্পন্ন হয়েছে। এই সময় উনার ছোটো মেয়ে যে ধরণের অসাধারণ সাহস দেখিয়েছে তা এখন চর্চার বিষয়ের সাথে সাথে নতুন দৃষ্টান্ত তৈরি করেছে।

বাবার শেষকৃতের সময় ছোটো মেয়ে আবেগপ্রবন ছিল এবং তার চোখে ছিল জল। তবে মেয়ের মুখ থেকে একটাই শব্দ বেরিয়েছিল- ‘বন্দে মাতরম’, শহীদ রাকেশ দোভালকে শেষ বিদায় জানানোর সময় লোকজন পাকিস্তান মুর্দাবাদ শ্লোগান দেয়। রাকেশ দোভালের পার্থিব শরীর উনার উত্তরখণ্ডের তীর্থনগরী ঋষিকেশে নিয়ে যাওয়া হয়, যেখানে বিএসএফ জওয়ানরা বীর শহীদকে শ্রদ্ধাঞ্জলি দেন।

সেই সময় শহীদের ছোটো মেয়ে গীতা দোভাল বলে, সে বড়ো হয়ে সেনায় যোগদান করবে। শহীদ বাবার সাথীদের উপস্থিতিতে গীতা বন্দে মাতরম শ্লোগান দেয়।

দীপাবলীর সময় পাক সেনা প্রতি বছরের মতো এবছরও পাক সেনা সিজ ফায়ার উলঙ্ঘন করছিল। ভারতীয় সেনা শহীদের বদলা নিতে পাকিস্তানের ৭-৮ জন সেনাকে খতম করেছে। একই সাথে পাকিস্তানের ১০ জন সৈনিক আহত হয়েছে বলে জানা গেছে।

Back to top button