fbpx
টাইমলাইনবিনোদন

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ অমান্য করেই চলছে অ্যাসিড বিক্রি, এক দিনে ২৪ বোতল অ্যাসিড সংগ্রহ দীপিকার

বাংলাহান্ট ডেস্ক: একদিনে ২৪ বোতল অ্যাসিড কিনলেন দীপিকা পাডুকোন। কোনও পরিচয়পত্র, প্রমাণ ছাড়াই এইসব অ্যাসিডের বোতল কিনে ফেলেন দীপিকা ও তাঁর দলবল। অ্যাসিড হামলা রুখতে সুপ্রিম কোর্টের কড়া নির্দেশ থাকা সত্ত্বেও এত সহজে অ্যাসিড পেয়ে হতবাক ও ক্ষুব্ধ অভিনেত্রী নিজেও।

আসলে কিছুদিন আগেই মুক্তি পেয়েছে দীপিকা পাডুকোন অভিনীত ‘ছপক’। অ্যাসিড অ্যাটাক সারভাইভার লক্ষ্মী আগরওয়ালের জীবনযুদ্ধ নিয়েই তৈরি এই ছবি। অ্যাসিড হামলার ফলে একজন মানুষের জীবনে যে কী দুর্যোগ নেমে আসতে পারে তার জ্বলন্ত উদাহরণ এই ছবি। এবার এই প্রসঙ্গেই একটি সামাজিক সমীক্ষা করার উদ্দেশ্যে বেরোন দীপিকা ও তাঁর টিম। তাঁরা দেখতে চান দেশে অ্যাসিড বিক্রির ওপর কতটা নিষেধাজ্ঞা মানা হচ্ছে। কতজনই বা অ্যাসিড কিনতে পারেন। কিন্তু এই সমীক্ষা করতে গিয়েই কার্যত বাকরুদ্ধ হতে হল অভিনেত্রীকে। বিভিন্ন সাজে সাজিয়ে দীপিকার টিমের লোকজন দেকানে যান অ্যাসিড কিনতে। মাত্র একজন ছাড়া আর কাউকেই কোনও পরিচয় পত্র বা কার দেখাতে হয়না অ্যাসিড কেনার জন্য। খুব সহজেই তারা অ্যাসিড কিনে নেন।

সারা দিন ঘুরে মোট ২৪ বোতল অ্যাসিড সংগ্রহ করে দীপিকার টিম। পরিস্থিতি দেখে হতবাক হয়ে গিয়েছেন অভিনেত্রী। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ থাকা সত্ত্বেও কীভাবে অ্যাসিড বিক্রি হতে পারে তা নিয়ে প্রশ্ন তুলতেও দেখা যায় তাঁকে। নিজের ছবির একটি সংলাপ উল্লেখ করে তিনি বলেন, “অ্যাসিড হামলা হওয়ার প্রধান কারন অ্যাসিড নিজেই। যদি এটা বিক্রিই না হত তাহলে কেউ কিনতও না, ছুঁড়তও না।”

ভিডিওর শেষে কয়েকজন অ্যাসিড অ্যাটাক সারভাইভার মহিলাকে বলতে শোনা যায়, অ্যাসিড কিনতে গেলে ক্রেতার বয়স ১৮ বছরের বেশি হতে হয়। দরকার বৈধ পরিচয়পত্র, ঠিকানা ইত্যাদি। দীপিকার এই ভিডিও এখন ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

Back to top button
Close