টাইমলাইনভারত

ভারতকে আত্মনির্ভর হওয়ার ডাক দিয়ে চিনের কোম্পানিকে ভারতীয় রেলের বরাত পাইয়ে দিলো মোদী সরকার!

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ সীমান্তে চিনের (China) সাথে চলা উত্তেজনা হোক আর ভারত (India) থেকে চিনের সামগ্রী বর্জন করে স্বদেশী আন্দোলনের ডাকই হোক না কেন, ভারত থেকে চিনের প্রভাব কমছে না। কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে দিল্লী-মেরঠ হাইস্পীড রেল করিডোরের বরাত এক চিনের কোম্পানির হাতে দেওয়া হচ্ছে। আর এই নিয়ে কংগ্রেস সরকারের উপর আক্রমণ করেছে। স্বদেশী জাগরণ মঞ্চও দাবি করেছে যে, এই বরাত যেন তাড়াতাড়ি স্থগিত করা হয়।

উল্লেখ্য, দিল্লী-মেরঠ রিজিওন্যাল র‍্যাপিড ট্রানজিট সিস্টেম (RRTS) প্রোজেক্টের আন্ডারগ্রাউন্ড স্ট্রেচ বানানোর জন্য চিনের একটি কোম্পানি টেন্ডার দাখিল করেছিল। ওই কোম্পানির নাম হল সাংহাই টানেল ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লিমিটেড (STEC)। এমন সময়ে দেশে যখন চিনের বিরুদ্ধে পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে আর চিনের দ্রব্যের বহিষ্কার করার কথা হচ্ছে, ঠিক তখনই ১১০০ কোটি টাকার বরাত চিনের ওই কোম্পানির হাতে তুলে দেওয়ার জন্য বিরোধীরা সরকারের তীব্র সমালোচনা করেছে।

শুধু তাই নয়, রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের সাথে যুক্ত স্বদেশী জাগরণ মঞ্চও নরেন্দ্র মোদীর সরকারের এই কাজের তীব্র বিরোধিতা করে এই টেন্ডার স্থগিত করার দাবি জানিয়েছে। কড়া ভাবে আগাগোড়াই চিনের বিরোধিতা করা স্বদেশী জাগরণ মঞ্চের দাবি হল, এই বরাত স্থগিত করে কোন ভারতীয় কোম্পানিকে দেওয়া হোক। মঞ্চ এও বলেছে যে, যদি সরকার আত্মনির্ভর ভারত অভিযানকে সফল করতে চায়, তাহলে এরকম গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্পে চিনের কোম্পানিকে টেন্ডার দাখিল করার সুযোগই দেওয়া উচিৎ না।

স্বদেশী জাগরণ মঞ্চের রাষ্ট্রীয় সহ-সংযোজক অশ্বিনী মহাজন সড়ক এবং হাইওয়ে মন্ত্রী নিতিন গড়কড়ির কাছে দাবি জানিয়েছে যে, এই বরাতকে যেন অতিসত্বর স্থগিত করা হয়। সুত্র অনুযায়ী, মঞ্চ চাইছে যে এই গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প যেন শুধুমাত্র কোন ভারতীয় কোম্পানির হাতেই তুলে দেওয়া হয়। মঞ্চ তাদের দাবি মন্ত্রালয় পর্যন্ত পৌঁছে দিয়েছে।

উল্লেখ্য, আজকাল চিনের সাথে লাদাখ সীমান্তে ভারতের উত্তেজনা লাগাতার বেড়েই চলেছে। আর এর মধ্যে চিনের কোম্পানিকে বরাত দেওয়া নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

Back to top button