টাইমলাইনরাশিফল

কালসর্প জীবনে ভয়ঙ্কর খারাপ সময় নিয়ে আসে, বিশদে জানুন এই কালসর্প যোগ সম্মন্ধে

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ ‘কাল’ শব্দের অর্থ ‘মৃত্যু’ আর ‘সর্প’ অর্থাৎ সর্পিলাকৃতি। কাল ও সর্প একত্রিত হলে তা, কোনও ব্যক্তির জীবনে ভয়ঙ্কর খারাপ সময় নিয়ে আসে। জ্যোতিষ বলে কালসর্পযোগের নেপথ্যে রাহু ও কেতুর ভূমিকা রয়েছে। এই ক্ষেত্রে পুরানের ব্যাখাটি হল স্বরভানু নামে এক অসুর সমুদ্র মন্থনের সময়ে অমৃত আস্বাদন করেছিল। তার মুণ্ড ছিন্ন করেন মোহিনীরূপী বিষ্ণু। কিন্তু তার ছিন্নমুণ্ড ও ধড় অমৃতপানের ফলে অমরত্ব লাভ করে। মুণ্ডটি রাহু এবং দেহটি কেতু নামে পরিচিত হয়ে মহাবিশ্বে ঘুরে বেড়াতে থাকে। কেতুর দেহকে সর্পিল বলে কল্পনা করা হয়।

বলা হয় কোনও ব্যক্তির জন্মকুণ্ডলিতে রাহু ও কেতুর অবস্থান বিন্দু দু’টির মাঝখানে যদি বাকি গ্রহগুলি আটকে পড়ে, তাঁর কালসর্পযোগ হয়। তবে সব ক্ষেত্রে এই যোগ সমান নয়। ৭টি কালসর্প যোগের কথা জানা যায়

অনন্ত কালসর্প যোগ- লগ্নে রাহু এবং সপ্তমে কেতু। কুলিকা কালসর্প- দ্বিতীয়ে রাহু এবং অষ্টমে কেতু। বাসুকী কালসর্প- তৃতীয়ে রাহু এবং নবমে কেতু। বাসুকী কালসর্প- তৃতীয়ে রাহু এবং নবমে কেতু। শঙ্খপাল কালসর্প- চতুর্থে রাহু এবম দশমে কেতু। পদ্ম কালসর্প- পঞ্চমে রাহু এবং একাদশে কেতু। মহাপদ্ম কালসর্প- ষষ্ঠে রাহু আবং দ্বাদশে কেতু। তক্ষক কালসর্প- সপ্তমে রাহু এবং প্রথমে কেতু।

অর্থ সংকট থেকে শুরু করে পারিবারিক বিবাদ, ষড়যন্ত্র থেকে মৃত্যু কালসর্প যোগের ফলে হতে পারে সব কিছুই। পরিত্রান পেতে নাগপঞ্চমীতে পূজার পরামর্শ দিচ্ছে জ্যোতিষ শাস্ত্রবিদরা । সেইসঙ্গে বাড়িতে কালসর্প যন্ত্র টাঙানোর নির্দেশও দিয়ে থাকেন।

 

Back to top button