টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গভারতরাজনীতি

সাধারণ মানুষের অসন্তোষের জন্যই ঝাড়খণ্ডে বিজেপির পরাজয় হয়েছে, দাবি দিলীপ ঘোষের

বাংলা হান্ট ডেস্ক : সদ্য সমাপ্ত ঝাড়খণ্ড বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির শোচনীয় পরাজয় হয়েছে, ও শুধুমাত্র ঝাড়খণ্ড বিধানসভা নির্বাচনে নয় হরিয়ানা কর্নাটক মহারাষ্ট্র বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির হাল হকিতক একেবারেই খারাপ। মাত্র কয়েক বছরের মধ্যেই একের পর এক বিধানসভা আসন হাতছাড়া হয়েছে গেরুয়া বাহিনীর তাই তো বিজেপির ফলাফল 21 থেকে মাত্র ষোলোই নেমে এসেছে।

যদিও ঝাড়খণ্ড বিধানসভা নির্বাচনে পরাজয়ের জন্য বিজেপির ঔদ্ধত্যকে দায়ী করেছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের একাংশ কিন্তু বিজেপির হার নিয়ে সম্পূর্ণ অন্য সুরে কথা বলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। শুক্রবার পূর্ব মেদিনীপুরের দুটি সাংগঠনিক বৈঠক শেষ করে স্থানীয় সমস্যা ও সরকারের প্রতি সাধারণ মানুষের অসন্তোষ এই হারের জন্য দায়ী এমনটাই বললেন দিলীপ ঘোষ।

তাই তো আসন্ন পুরসভা ভোট নিয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে দিলীপ ঘোষ বলেন, বর্তমান রাজ্য সরকার ভোটে ভয় পাচ্ছে তাই 15 পুরসভা ও দুটি করপোরেশনের ভোট আটকে রেখেছে বলে দাবি তোলেন। পাশাপাশি বিজেপির সভাপতি আরও দাবি করেন লোকসভা ভোটের মতো পুরসভা ভোটেও সংগঠন দাঁড়িয়ে লড়াই করা হবে।

ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চা আর রাষ্ট্রীয় জনতা দলের মহাজোট এবার এই সমস্ত এলাকা গুলোতে ভালো ফল করেছে। ঝাড়খণ্ডে মোট ৮১ টি বিধানসভা আসন আছে, যার মধ্যে নকশাল প্রভাবিত এলাকায় ৬১ টি আসন। এরমানে এই যে, ঝাড়খণ্ডে দুই তৃতীয়াংশর বেশি আসন নকশাল প্রভাবিত।

এইবার এই নকশাল প্রভাবিত এলাকায় বিজেপি মাত্র ১৬ টি আসন পেয়েছে, কিন্তু গতবার এই এলাকা গুলো থেকে বিজেপি অনেক আসন পাওয়ার পর ক্ষমতায় বসেছিল। কিন্তু এবার এই নকশাল প্রভাবিত এলাকা থেকে বিজেপি নয়টি আসন কম পেয়েছে। আর এই কারণে এবার বিজেপির সমীকরণ নষ্ট হল।

আরেকদিকে নকশাল প্রভাবিত এলাকায় কংগ্রেস এবং ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চা এবার কামাল দেখিয়েছে। এই দুই দলকে একসাথে ধরলে এইবার তাঁরা ৩২ টি আসন পেয়েছে নকশাল প্রভাবিত এলাকা থেকে। কংগ্রেস পেয়েছে ১০ টি আসন আর ২২ টি আসন পেয়েছে ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চা।

 

Related Articles

Back to top button