টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

মুকুল রায় নির্লজ্জের মতো বিজেপির বেঞ্চে বসেছেন, উনি কি ত্রিশঙ্কু নাকি! খোঁচা দিলীপ ঘোষের

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যাওয়া কৃষ্ণনগর উত্তরের বিধায়ক মুকুল রায়কে (Mukul Roy) একহাতে নিলেন বঙ্গ বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। শুক্রবার একটি সাংবাদিক বৈঠক থেকে মুকুল রায়কে কটাক্ষ করে দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘উনি বিজেপির টিকিটে জিতলেন, তারপর গিয়ে তৃণমূলে যোগ দিলেন। এখন আবার নির্লজ্জের মতো আমাদের বেঞ্চেই বসে আছেন। উনি কি PAC-এর চেয়ারম্যান হবে বলে ত্রিশুঙ্কু হয়ে গেলেন নাকি?”

প্রসঙ্গত, ভোটের ফলাফল প্রকাশ হওয়ার পর থেকেই রাজনৈতিক গতিবিধি থেকে নিজেকে দূরে রেখেছিলেন মুকুলবাবু। এরপরই ওনাকে নিয়ে রাজনৈতিক মহলে জোর জল্পনা ছড়ায়। যদিও, তখন তিনি একটি টুইট করে লিখেছিলেন, ‘গণতান্ত্রিক ভাবে অগণতান্ত্রিক সরকারের বিরুদ্ধে ওনার লড়াই চলবে।” তবে এই টুইটের কদিন পরই তিনি সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটিয়ে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেন।

তবে তৃণমূলে যোগ দিলেও তিনি বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দেননি। বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী ওনার বিধায়ক পদ কেড়ে নেওয়ার জন্য অনেক প্রচেষ্টা চালিয়েছেন ঠিকই, কিন্তু এখনও তিনি তাতে সফল হননি। এমনকি শুভেন্দুবাবু পিএসি চেয়ারম্যান পদে মুকুল রায়ের মনোনয়ন জমা দেওয়া আটকানোর প্রচেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু তাতেও তিনি সফল হননি। আর তখনই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুকুল রায়কে নিয়ে বিস্ফোরক বয়ান দিয়ে বলেন, উনি এখনও বিজেপির সদস্য।

মুকুল রায়ের বিজেপি ত্যাগ করে তৃণমূলে ফিরে যাওয়ার পর আজই প্রথম বিধানসভার অধিবেশন হয়। যদিও, এই অধিবেশন শুরুর সময়ই তুমুল হাঙ্গামার কারণে রাজ্যপাল নিজের ভাষণ না দিয়েই বিধানসভা থেকে বেরিয়ে যান। তবে, উল্লেখযোগ্য বিষয় হল শাসক দল তৃণমূলে যোগ দেওয়ার পরেও মুকুল রায়কে আজ বিধানসভায় বিরোধী বেঞ্চেই বসতে হয়। আর এই নিয়েই দিলীপ ঘোষ ওনাকে কটাক্ষ করেন।

Related Articles

Back to top button