টাইমলাইনবিনোদন

রজনীকান্তের প্রাক্তন জামাই, অভিনয়-পরিচালনা-গানে পারদর্শী ধনুষের বার্ষিক আয়ই ১৪০ কোটির বেশি!

বাংলাহান্ট ডেস্ক: রজনীকান্তের মেয়েকে ডিভোর্স দিয়ে রাতারাতি লাইমলাইটে উঠে এসেছেন দক্ষিণী অভিনেতা ধনুষ (dhanush)। গত সোমবারই দীর্ঘ ১৮ বছরের দাম্পত‍্য সম্পর্ক ভাঙার কথা ঘোষনা করেছেন তিনি। এমনকি শোনা যাচ্ছে, মেয়ে ঐশ্বর্যর সংসার বাঁচানোর জন‍্য খোদ শ্বশুর রজনীকান্ত কথা বলতে রাজি হলেও নাকি বেঁকে বসেছেন ধনুষ।

বিচ্ছেদের পর থেকেই গোটা বিনোদন ইন্ডাস্ট্রির নজর গিয়ে পড়েছে ধনুষের ব‍্যক্তিগত জীবনে। তাঁর পুরো নাম ভেঙ্কটেশ প্রভু কস্তুরী রাজা। মূলত দক্ষিণী ইন্ডাস্ট্রিতেই তাঁর ঠাঁটবাট থাকলেও বলিউডেও দুটি ছবিতে অভিনয় করেছেন ধনুষ। ইতিমধ‍্যেই বেশ জনপ্রিয়তাও পেয়েছেন তিনি। স্বাভাবিক ভাবেই কৌতূহল থাকবেই, রজনীকান্তের জামাই তথা অভিনেতা ধনুষের সম্পত্তির পরিমাণ কত। তাঁর জীবনযাপনের ধরনই বা কেমন।


জানা যায়, ধনুষকে যারা চেনেন তারা জানেন তিনি তারকা সুলভ হাবভাব খুব একটা পছন্দ করেন না। কোটিপতি হয়েও সাদাসিধা জীবন যাপন করতেই ভালবাসেন অভিনেতা। উল্লেখ‍্য, ‘কোলাভেরি ডি’ গানটি ভাইরাল হওয়ার পর থেকেই দক্ষিণ ভারত ছাড়িয়ে গোটা দেশে ছড়িয়ে পড়ে ধনুষের পরিচিতি। ২০১৩ তে সোশ‍্যাল মিডিয়ার তেমন রমরমা না থাকলেও তুমুল জনপ্রিয় হয়েছিল গানটি।

দুটি ছবির জন‍্য জাতীয় পুরস্কারও পেয়েছেন ধনুষ। সূত্রের খবর মানলে, এক একটি ছবির জন‍্য ৮-১০ কোটি টাকা পারিশ্রমিক নেন তিনি। কম যান না প্রাক্তন স্ত্রী ঐশ্বর্যও। পেশায় ছবি পরিচালক এবং গায়িকা ঐশ্বর্যর বার্ষিক আয় প্রায় ৭-৩৫ কোটি টাকা। শোনা যায়, ২০২০ সালে ধনুষের মোট আয় ছিল প্রায় ১৪৫ কোটি টাকা।


সূত্রের খবর, ২০২১ এ করোনা আবহের মধ‍্যেও ১৪২ কোটি টাকা আয় করেছিলেন অভিনেতা। গত পাঁচ বছরে তাঁর আয় বেড়েছে আনুমানিক আট কোটি টাকা। সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ‍্যম সূত্রে খবর, তাঁর মোট সম্পত্তির পরিমাণ প্রায় ১৬০ কোটি টাকা।

উল্লেখ‍্য, ধনুষের আয়ের বেশিরভাগটাই আসে বিভিন্ন ব্র‍্যান্ডের বিজ্ঞাপন থেকে। চেন্নাইয়ের অভিজাত এলাকায় থাকেন ধনুষ। তাঁর বিলাসবহুল বাসস্থানের দাম ২৫ কোটিরও বেশি। পাশাপাশি আরো কিছু স্থাবর সম্পত্তির মালিক তিনি।

Related Articles

Back to top button