টাইমলাইনআন্তর্জাতিক

পাকিস্তান থেকে আগত হিন্দু চিকিৎসকরা করলেন সরকারের কাছে আবেদন: আমাদেরও দেওয়া হোক চিকিৎসা করার সুযোগ

করোনা আরো মরণ রোগে পরিণতি পাচ্ছে। এতে ক্রমশঃ মৃত্যু হার বাড়ছে। পাকিস্তানের মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস ডিগ্রি অর্জনকারী প্রবাসী হিন্দু অনুশীলনকারীরা এখানে করোনভাইরাসকে মোকাবিলা করার জন্য স্বাস্থ্যকর্মীদের সাথে কাজ করার অনুমতি চেয়েছিল।

এল জাঙ্গিদ নামক একজন কুড়ি বছর আগে ভারতে এসেছিলেন এবং করাচির সিন্ধু মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস ডিগ্রি করেছিলেন। তিনি এবং তাঁর মতো অন্যান্য ডাক্তার সেই সংখ্যা প্রায় তিনশো। তারা সবাই ভারতে মেডিক্যাল কাউন্সিলের বাধ্যতামূলক পরীক্ষার অনুমতি না পাওয়ায় ভারতে অনুশীলন করতে পারছেন না। জাঙ্গিদ বলেছিলেন, ‘ভারত সরকার যদি এই বিষয়টি গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করে এবং আমাদেরকে যোগ্য চিকিত্সক ডাক্তার হিসাবে অনুমতি দেয় তবে আমরা কোভিড -১৯ কিছু কাজ হতে পারে।

“করোনা ভাইরাস ত্রাস এখন সবাইকে দিন রাত আতঙ্কের মধ্যে দিয়ে তাড়া করে বেড়াচ্ছে। চীন থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাস ইতিমধ্যে মৃত্যু দূত হয়ে এসে পৌঁছেছে পৃথিবীতে। প্রায় সব দেশ এখন করোনা আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে। দিন থেকে রাত আর রাত থেকে দিন যে কখন চলে যাচ্ছে টা বোঝার উপায় নেই। কারণ বিপদ থেকে বাঁচতে এখন সবাই গৃহ বন্দী। আর চীনের উহানে পরে ইরানে সারা পৃথিবীতে ছড়িয়ে পড়ছে।

মেডিকেল কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া (এমসিআই) দ্বারা নির্ধারিত পরীক্ষায় পাস না হওয়া পর্যন্ত এই ডাক্তারদের ভারতে অনুশীলনের অনুমতি দেওয়ার কোনও সম্ভাবনা নেই বলেও জানানো হয়েছে।  পাশাপাশি জানা গেছে বিদেশ থেকে এমবিবিএ ডিগ্রি অর্জনকারী কেবলমাত্র ভারতীয় নাগরিকই এই পরীক্ষা দিতে পারবেন।

Back to top button