fbpx
টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

দিনহাটায় তৃণমূলের মহিলারাই তৃণমূলের বিরুদ্ধে করলেন ঝাঁটা মিছিল

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ এবার তৃণমূলের (TMC) বিরুদ্ধে তৃণমূলের ঝাঁটা মিছিল, পঞ্চায়েত ঘেরাও নিয়ে চাঞ্চল্য ছড়াল দিনহাটায়। এই তো বছর দুয়েক আগে ভোট হয়েছে। সেই সময়ে কোচবিহারের দিনহাটায় ছিল তৃণমূল কংগ্রেসের আধিপত্য বিস্তার করেছে। দিনহাটার নাজিরহাট -২ গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান পাপিয়া বর্মনকে জেতাতে দু’বছর আগে যাঁরা ঝাণ্ডা হাতে মিছিলে বেরিয়েছিলেন, সোমবার তাঁরাই মিছিল করলেন ঝাঁটা হাতে।

গ্রামবাসীদের অভিযোগ, কোনও কাজ নিয়ে পঞ্চায়েত দফতরে গেলে তা হয় না। কারণ প্রধান আসেন না। যে কাজ গ্রাম পঞ্চায়েত অফিসে হয়ে যাওয়ার কথা, তা করতেও জেলা পরিষদ বা সমিতির দফতরে ছুটতে হয়!

তৃণমূলের পঞ্চায়েত প্রধানের বিরুদ্ধে তৃণমূলের একাংশের নেতৃত্বে গ্রামের মহিলাদের নিয়ে ঝাঁটা মিছিল ঘিরে উত্তেজনা ছড়াল দিনহাটায়। ওই ঝাঁটা মিছিলের নেতৃত্ব দেন শাসকদলের স্থানীয় অঞ্চল সভাপতি তরণীকান্ত বর্মন । তরণীবাবু জানান , “দীর্ঘদিন প্রধান পঞ্চায়েত দপ্তরে আসছেন না । কোনও কাজও করছেন না । সাধারণ মানুষ পরিষেবা পাচ্ছেন না। এবার দফতরে না এলে প্রধান পদ চলে যেত দেখে সোমবার তিনি এসেছিলেন। তখনই স্থানীয়রা বিক্ষোভ দেখান। আমি শুধু তাঁদের পাশে দাঁড়িয়েছিলাম।”

এমনিতেই কোচবিহার জেলার তৃণমূল গোষ্ঠী কোন্দলে বিদীর্ণ। রোজই প্রায় গণ্ডগোল লেগে থাকে। এমনকি বোমাবাজির মতো ঘটনাও ঘটনাও ঘটে আকছাড়। এদিন সেই কোন্দলই ঝাঁটা মিছিলে পরিণত হয়। যদিও পঞ্চায়েত প্রধানের কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

কোভিড পরিস্থিতি এবং উমফান পরবর্তী সময়ে শাসকদক্লের পঞ্চায়েত সদস্যদের বিরুদ্ধে একের পর এক অভিযোগ সামনে এসেছে। কোথাও কোথাও অভিযুক্ত নেতাদের দল থেকে তাড়াতেও বাধ্য হয়েছে তৃণমূল। সপ্তাহ দেড়েক আগেই দক্ষিণ ২৪ পরগনায় দেখা গিয়েছিল, শাসকদলের পঞ্চায়েত প্রধানকে রাস্তার মাঝে কান ধরে ওঠবস করাচ্ছেন গ্রামবাসীরা। এবার পঞ্চায়েত প্রধানের বিরুদ্ধে ঝাঁটা হাতে মিছিল দেখা গেল উত্তর বাংলার কোচবিহারে।
Back to top button
Close
Close