টাইমলাইনফুটবলখেলা

মহেশ-ক্লিয়েটন কম্বিনেশনই ফের হয়ে উঠলো প্রাণভোমরা! মরশুমের তৃতীয় ম্যাচ জয় ইস্টবেঙ্গলের

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক: আরও একটা অ্যাওয়ে ম্যাচ এবং আরও একটি জয় ইস্টবেঙ্গলের। নিজেদের শেষ ম্যাচে ওড়িশা এফসির বিরুদ্ধে নিজেদের ঘরে ২-০ ফলে এগিয়ে গিয়েও ৪-২ ফলে হারতে হয়েছিল ইস্টবেঙ্গলকে। চোট পেয়েছিলেন তাদের সাইপ্রাসের বিদেশী চারালুম্বোস কিরিয়াকু। এই অবস্থায় অনেক ইস্টবেঙ্গল ভক্তই চিন্তিত ছিলেন যে অ্যাওয়ে ম্যাচে প্রতিপক্ষের ঘর থেকে পয়েন্ট নিয়ে ফেরা যাবে কিনা সেই নিয়ে।

কিন্তু চলতি মরশুমের ধারা মেনে আরও একবার নিজেদের অ্যাওয়ে জার্সি গায়েই দাপট দেখালো লাল হলুদ ব্রিগেড। জোড়া গোল করলেন ইস্টবেঙ্গলের ব্রাজিলিয়ান ফরওয়ার্ড ক্লিয়েটন সিলভা। গোল পেলেন ভিপি সুহেরও। কিন্তু ম্যাচের যাবতীয় নজরে নিজের দিকে ঘুরিয়ে নিলেন ইস্টবেঙ্গলের তরুণ তারকা নাওরেম মহেশ।

আজ চলতি মরশুমে অত্যন্ত খারাপ অবস্থায় থাকা জামশেদপুরকে ৩-১ ফলে হারিয়েছে ইস্টবেঙ্গল। তিনটি গোলের ক্ষেত্রেই গোলে সহায়তা করেছেন নাওরেম মহেশ। যতদিন গড়াচ্ছে ক্লিয়েটন সিলভার সঙ্গে তার কেমিস্ট্রি এক আলাদা মাত্রা নিচ্ছে। এই মরশুমে এই নিয়ে পাঁচটি অ্যাসিস্ট করা হয়ে গেল ইস্টবেঙ্গল তারকার। আজকের ম্যাচের পর তিনি চলতি মরশুমে আইএসএলের সর্বোচ্চ সহায়তা করা ফুটবলারে পরিণত হয়েছে। সেই সঙ্গে পাঁচ গোল করে সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিকাতেও আপাতত শীর্ষে ইস্টবেঙ্গল ফরোয়ার্ড ক্লিয়েটন সিলভা।

আজকের ম্যাচে প্রশংসা জনক পারফর্মেন্স করেছেন ইস্টবেঙ্গল ডিফেন্ডার ইভান গঞ্জালেজ এবং ফরোয়ার্ড ভিপি সুহের। বেশকিছু নিখুঁত ট্যাকেল করে আজ ইস্টবেঙ্গলের পতন রোধ করেছেন ইভান।নিজে গোল করার পাশাপাশি তৃতীয় গোলটির সময় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়েছিলেন সুহের। দুই তারকাই ইস্টবেঙ্গল সমর্থকদের কাছে গত কয়েক ম্যাচের পারফরম্যান্সের জন্য প্রবল সমালোচিত হয়েছিলেন। আপাতত তাদেরকে কিছুটা চুপ করালেন দুই লাল হলুদ তারকা।

তবে ম্যাচ জিতলেও ইস্টবেঙ্গলের চিন্তার জন্য এখনো বেশ কয়েকটি কারণ রয়েছে। আজও ক্লিনশিট রাখতে পারেনি এই ইস্টবেঙ্গল ডিফেন্স। গোলরক্ষক বলছি তো গোটা ম্যাচে একাধিক এমন ভুল করেন যার জন্য ভুগতে হতে পারত ইস্টবেঙ্গলকে। ৪০ মিনিটে বক্সের মধ্যে লালচুংগুঙ্গা ফাউল করলে পেনাল্টি পেয়েছিল জামশেদপুর। সমতা ফেরাতে ভুল করেনি একসময় আর্সেনালের হয়ে খেলা তাদের বিদেশী ফুটবলার জেট। এছাড়া প্রাক্তন ইস্টবেঙ্গল ফরোয়ার্ড চিমাচুকুর সাথে মিলে ইস্টবেঙ্গল রক্ষণ কে বারবার কাঁপিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। এই সমস্যাগুলির দ্রুত কাটিয়ে না উঠলে ভবিষ্যতে বড় দলগুলির বিরুদ্ধে বারবার সমস্যা করতে হতে পারে লাল হলুদ ব্রিগেডকে। আপাতত আজকের ম্যাচ জিতে পয়েন্ট তালিকায় বেঙ্গালুরুকে টপকে আট নম্বরে উঠে এলো তারা।

 

Related Articles