টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

আমেরিকায় থাকেন মেয়ে-জামাই, তাদের ইমেল করে তলব ইডির! অস্বস্তি বাড়ছে পার্থর

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ এসএসসি (SSC) মামলায় সম্প্রতি ইডির (ED) হাতে গ্রেফতার হয়েছেন প্রাক্তন তৃণমূল কংগ্রেস (Trinamool Congress) নেতা পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chatterjee)। ইতিমধ্যেই তাঁর ঘনিষ্ঠ অভিনেত্রী অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের (Arpita Mukherjee) ফ্ল্যাট থেকে পঞ্চাশ কোটি নগদ অর্থ এবং একাধিক সোনা গয়না ও মোবাইল ফোন পাওয়া গিয়েছে, যা ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে গোটা বাংলায়। ইতিমধ্যেই আদালতের নির্দেশে ইডি হেফাজতে রয়েছেন পার্থ-অর্পিতা আর এবার কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার নজরে উঠে এল পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কন্যা সোহিনী ভট্টাচার্য এবং জামাই কল্যাণময় ভট্টাচার্যের নাম। বর্তমানে এসএসসি এবং প্রাথমিক টেট মামলায় পার্থর মেয়ে এবং জামাইকে ডেকে পাঠালো ইডি।

এই মামলায় ইতিমধ্যে একটি ইমেইল করে পাঠানো হয়েছে বলে ইডি সূত্রে খবর। উল্লেখ্য, পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের মেয়ে ও জামাই দুজনেই আমেরিকায় থাকেন। ফলে ইডির তলব মাঝে তারা কবে নাগাদ বাংলায় এসে পৌঁছাবেন, তা ঘিরে ইতিমধ্যে একাধিক প্রশ্ন চিহ্ন সৃষ্টি হয়েছে।

প্রসঙ্গত, বিগত বেশ কয়েকদিনে অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের ফ্ল্যাট থেকে একাধিক নগদ অর্থ এবং সোনা গয়না উদ্ধার হওয়ার পাশাপাশি বাংলার বিভিন্ন প্রান্তে পার্থ ও অর্পিতার নামে একাধিক সম্পত্তির হদিশ মিলেছে। এক্ষেত্রে এসএসসি মামলায় চাকরি বিক্রি করে সেই টাকা দিয়েই এ সকল সম্পত্তি কেনা হয়েছে বলে অনুমান ইডির। কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার দাবি, এক্ষেত্রে একাধিক তথ্য প্রমানও মিলেছে আর সেই সূত্র ধরেই এবার সোহিনী ও কল্যাণময় ভট্টাচার্যকে ডেকে পাঠালো তারা।

ইডি সূত্রে খবর, পার্থ এবং অর্পিতার পরিবারের সদস্যদের নামে ‘অনন্ত টেক্সফেব প্রাইভেট লিমিটেড’ নামে একটি সংস্থার খোঁজ পাওয়া গিয়েছে। উল্লেখ্য, এই সংস্থাটির ঠিকানা হিসেবে অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের বেলঘড়িয়ার ফ্ল্যাটের ঠিকানা দেওয়া রয়েছে। বলে রাখা ভালো, কয়েক দিন পূর্বে বেলঘড়িয়ার এই ফ্ল্যাটটি থেকেই কোটি কোটি নগদ অর্থ এবং সোনা উদ্ধার করে ইডি। স্বভাবতই, এরকম সংস্থার সূত্র ধরে এবার পার্থ-কন্যা এবং তাঁর স্বামীকে তলব করতে চলেছে ED।

প্রসঙ্গত, এদিন পুনরায় একবার পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং অর্পিতাকে আদালতে তোলা হবে। ইডির দাবিজ এই মুহূর্তে তাদের হাতে বহু তথ্য প্রমাণ রয়েছে, যা থেকে প্রমাণ করা যায় যে, এসএসসি মামলায় সরাসরি যোগ রয়েছে পার্থ-অপিতার। এক্ষেত্রে একাধিক স্থানে সম্পত্তি পাওয়ার পাশাপাশি অর্পিতার ফ্ল্যাটগুলি থেকে দলিল সহ অন্যান্য একাধিক প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে। ফলে এদিন আদালতের তরফ থেকে ‘অপা’-কে পুনরায় একবার ইডি হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয় কিনা, সে দিকে তাকিয়ে সকলে।

Related Articles

Back to top button