টাইমলাইন

কমেন্ট ঝড়ে বিব্রত হয়ে নিজের প্রোফাইল থেকে উড়িয়েই দিলেন কমেন্ট সেকশন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ স্যোশাল মিডিয়ায় কমেন্টের ঝড়ে বিধস্ত শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chatterjee)। বিরক্ত হয়ে নিজের ফেসবুক প্রোফাইল থেকে উড়িয়েই দিলেন ‘কমেন্ট সেকশন’, এমনটা দাবী উঠেছে। করোনা (COVID-19) আতঙ্কের মধ্যেও এখন কমেন্ট আতঙ্কে ভুগছেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

স্যোশাল মিডিয়ায় ক্ষিপ্ত হন তারা

চাকরিতে নিয়োগ হোক বা বেতন বৃদ্ধির দাবী- বহুবার নিজেদের অধিকার রক্ষার্থে রাস্তায় নেমেছেন নিযুক্ত রাজ্যের বহু কর্মচারী থেকে শুরু করে চাকরিপ্রার্থীরা। সরকার পক্ষ থেকে বহুবার তাঁদের এই প্রতিবাদকে ভেঙ্গে দিয়ে, স্বান্তনা দিয়েছে। তবে এই করোনার জেরে লকডাউনের মধ্যে কিন্তু তারা একদমই চুপ করে ঘরে বসে নেই। পথে নেমে প্রতিবাদ করতে না পারলেও, স্যোশাল মিডিয়ায় প্রতিবাদের ঝড় তোলনে তারা। বাংলার প্রাথমিকের চাকরিপ্রার্থী থেকে শুরু করে, টেট ও অতিথি অধ্যাপকদের একাংশের কমেন্টের বন্যায় ভেসে যায় শিক্ষামন্ত্রীর প্রোফাইল।

বিরক্ত হয়েই কমেন্ট সেকশন উড়িয়ে দিলেন শিক্ষামন্ত্রী!

বিভিন্ন সময়ে দাবী মেনে না নেওয়ায় এই মানুষেরা লকডাউনকে হাতিয়ার করে স্যোশাল মিডিয়ায় প্রতিবাদের ঝড় তোলেন। তাঁদের আক্রমণের মুখ্য হলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। শিক্ষামন্ত্রীর নজরে আসার জন্য, তাঁর যে কোন পোস্টেই পড়তে থাকে হাজার হাজার কমেন্ট। শোনা গিয়েছে, এই কমেন্টের ঝড় সহ্য করতে না পেরে শেষ মেশ নিজের ফেসবুক প্রোফাইল থেকে কমেন্ট সেকশন তুলে দিলেন শিক্ষামন্ত্রী।

শিক্ষামন্ত্রীর পোস্টে কমেন্টের বন্যা

লকডাউনের মধ্যেই শিক্ষামন্ত্রী যে কোন পোস্ট করেলই তাতে হাজার হাজার কমেন্ট পড়তে শুরু করে। বিষয়টি নজরে আসে ২৬ শে এপ্রিল শিক্ষামন্ত্রীর করা একটি পোস্টে ৩২০০টি মন্তব্য পড়তে দেখা যায়। যা বৃদ্ধি পেয়ে ২৮ শে এপ্রিল হয়ে দাঁড়ায় ৯৫০০টি। এরপর ৩০ শে এপ্রিলের একটি ইউজিসি চিঠি বিষয়ক পোস্টে ১০ হাজার কমেন্ট আসে। এমনকি মে দিবসের শুভেচ্ছার পোস্টও বাদ যায়নি। সেখানেই প্রায়  ৪২ হাজার কমেন্ট দেখতে পাওয়া যায়।

রাজস্থানের কোটা ফেরত পড়ুয়াদের জন্য শুভেচ্ছা বার্তা জানিয়ে নিজের ফেসবুক ওয়ালে ২ রা মে একটি পোস্ট করেছিলেন শিক্ষামন্ত্রী। রাজ্যের চাকরিপ্রার্থী, টেট ও অতিথি অধ্যাপকদের একাংশের কমেন্টের ঝড় সেখানেও অব্যাহত থাকে। কমেন্ট পড়ে ২৭ হাজার। একইভাবে গতকাল মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে শিবনাথ শাস্ত্রী কলেজেরের তরফে দু’লক্ষ টাকা অনুদানের বিষয় নিয়ে পোস্ট করতেই, মুহূর্তের মধ্যেই ১৩০০ কমেন্ট চলে আসে। অনাকাঙ্ক্ষিত এই কমেন্ট ঝড়ে বিব্রত হন শিক্ষামন্ত্রী। দাবী উঠেছে বাধ্য হয়ে নিজের প্রোফাইল থেকে কমেন্ট বিভাগ সরিয়ে দেন।

বিতর্কের মুখে শিক্ষামন্ত্রী

নিজের প্রোফাইল থেকে কমেন্ট সেকশন উড়িয়ে দিয়ে কার্যত বিতর্কের মুখে পড়েন শিক্ষামন্ত্রী। ড্যামেজ কন্ট্রোলের চেষ্টা করলেন শিক্ষামন্ত্রী এমনটাও অভিযোগ আসতে থাকে।

Back to top button