টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গবিধানসভা নির্বাচন

বড়সড় ঝটকা খেল অনুব্রত, রাতের মধ্যে জবাব না দিলে কড়া অ্যাকশন নেবে কমিশন

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ রাজ্যে মিটেছে চার দফার ভোটগ্রহণ। বাকি আরও চার দফা। তার আগে অর্থাৎ ভোট পঞ্চমীর আগে ক্রমে কড়া হচ্ছে নির্বাচন কমিশন। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) থেকে প্রধান বিরোধী দল বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের (Dilip Ghosh) বিরুদ্ধে ইতিমধ্যেই নিয়েছেন নজরকাড়া পদক্ষেপ। এবার সেই তালিকায় যুক্ত হল বীরভূমের ‘বেতাজ বাদশা’ অনুব্রত মন্ডল।

এদিন ভোটের আবহে একাধিক বিতর্কিত মন্তব্য করার প্রেক্ষিতে তৃণমূলের বীরভূম (Birbhum) জেলার সভাপতি অনুব্রত মন্ডলকে (Anubrata Mondal) শোকজ নোটিস পাঠাল নির্বাচন কমিশন। জেলার নির্বাচন অধিকারিকের মাধ্যমে এই নোটিস পাঠানো হয়েছে। আজ অর্থাৎ মঙ্গলবার রাত ১০ টার মধ্যে নোটিসের জবাব তলব করেছে নির্বাচন কমিশন। যা আবার জেলা আধিকারিকের মাধ্যমে রাজ্য নির্বাচন আধিকারিকের দফতরে যাবে, আর সেখান থেকে তা পাঠানো হবে দিল্লির সদর দফতরে। উল্লেখ্য, অনুব্রত মণ্ডলের ‘ভয়ঙ্কর খেলা’ হবে মন্তব্যে বীরভূম বিজেপির জেলা নেতৃত্বের তরফে জেলা নির্বাচনী আধিকারিকের কাছে অভিযোগ জানানো হয়। তারপরই এদিন কেষ্টকে শোকজ নোটিস ধরাল নির্বাচন কমিশন।

Will Break Arms, Legs': Trinamool Leader Anubrata Mondal Threatens Opposition Members

প্রসঙ্গত, বিভিন্ন নির্বাচনী সভা থেকে অনুব্রত মন্ডল নিজের স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে ‘প্রশিক্ষণ’ দিচ্ছেন। এমনকি শুধুমাত্র সেই ‘খেলা হবে’ মন্তব্যে থেমে না থেকে অনুব্রত দাবি করছেন ‘ভয়ঙ্কর খেলা’ হবে। এই খেলায় তৃণমূলের সঙ্গে পেরে ওঠা মুশকিল। এমনকি তিনি এও বলেন, মোদ্দা কথাটা হল ট্রেনিংয়ের। কোন বলে চার, কোন বলে ছয় আর কোন বলে দুই নিলেও আউট হব না, সেটা বুঝে গেলে সমস্যায় নেই।’ আরও একধাপ এগিয়ে তিনি বলেন, ‘এই খেলায় রেফারি হবে নির্বাচন কমিশন (Election Commission), আর খেলায় কেউ আহত হলে তাঁদের হাসপাতালে ভর্তি করা হবে’।

এই সব মন্তব্য উল্লেখ করে বিজেপির (BJP) জেলা নেতৃত্ব দাবি করেন, অনুব্রতে আদতে হুমকি দিচ্ছেন, এমনকি বিভিন্ন জনসভা থেকে তিনি বিজেপিকে ঠেঙিয়ে পগারপার করার নিদানও দিচ্ছেন বলে অভিযোগ করা হয়। এদিন সেসব মন্তব্যের প্রেক্ষিতেই অনুব্রত মন্ডলকে শোকজ নোটিস ধরাল কমিশন। জানিয়ে দি, ২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনে এই অনুব্রত মন্ডলকে নজরবন্দী করেছিল কমিশন। এখন দেখার বিষয় এবার কি পদক্ষেও নেয় বীরভূমের কেষ্টর বিরুদ্ধে।

Back to top button