টাইমলাইনভারতরাজনীতি

মহিলার উপর অভদ্র কমেন্ট করায় কমলনাথের উপর কড়া পদক্ষেপ নির্বাচন কমিশনের, চাপে কংগ্রেস পার্টি

Bangla Hunt Desk: নির্বাচনের পূর্বেই এক বড় পদক্ষেপ নিল নির্বাচন কমিশন। কংগ্রেস নেতা কমলনাথ (Kamal Nath) তথা মধ্যপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর কাছ থেকে কেড়ে নেওয়া হল ‘তারকা প্রচারকারী’ মর্যাদা। বিজেপির মহিলা প্রার্থী ইমরাতি দেবীকে ‘আইটেম’ এবং মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহানকে ‘মাফিয়া’, ‘মিলাওয়াতখোর বলার অভিযগে এই সিদ্ধান্ত নিল নির্বাচন কমিশন।

ইমারতী দেবীর উদ্দেশ্যে অপমানজনক মন্তব্য
কিছুদিন আগেই উপনির্বাচনের প্রচারে মধ্যপ্রদেশের গোয়ালিয়রের দাবরা টাউনের এক জনসভায় বিজেপিকে কটাক্ষ করতে গিয়ে বিজেপি প্রার্থী ইমারতী দেবীর উদ্দেশ্যে নানা মন্তব্য করেন কমলাথ (Kamal Nath)। এমনকি ওই ভরা সভায় দাঁড়িয়ে তিনি বলেছিলেন, ‘আপনারা তো ওনাকে আগে থাকতেই চিনতেন। আপনাদের উচিত ছিল ওনার বিষয়ে আমাকে সাবধান করা, যে উনি কেমন আইটেম’।

বিরূপ মন্তব্য শিবরাজ সিংহ চৌহানের বিরুদ্ধেও
শুধুমাত্র বিজেপি প্রার্থী ইমারতী দেবী নয় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিংহ চৌহান সম্পর্কেও নানা বিরূপ মন্তব্যও করেছেন কংগ্রেস নেতা কমলনাথ। শিবরাজ সিংহ চৌহানকে ‘মাফিয়া’, ‘মিলাওয়াতখোর বলেও অভিযুক্ত করেন কমলনাথ। কংগ্রেস নেতার এই সকল আচরণ একেবারেই সমর্থন করেনি নির্বাচন কমিশন।

পদক্ষেপ নিল নির্বাচন কমিশন
বিজেপির মহিলা প্রার্থী ইমরাতি দেবীকে ‘আইটেম’ বলায় নির্বাচন কমিশন কংগ্রেস নেতা কমলাথের তীব্র নিন্দা করে। অ্যাডভাইসরি উলঙ্ঘনেরও অভিযোগ আনে। কমলনাথের বিরুদ্ধে মডেল আচরণবিধির ধারা উলঙ্ঘন করে অনৈতিক, অসম্মানজনক আচরণ করার অভিযোগও আনা হয়।

কেড়ে নেওয়া হল ‘তারকা প্রচারকারী’ তকমা
এইসমস্ত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে শুক্রবার নির্বাচন কমিশন এক আদেশ জারি করে জানিয়েছে, মডেল আচরণবিধির ধারা উলঙ্ঘন করে অনৈতিক, অসম্মানজনক আচরণ এবং অ্যাডভাইসরি উলঙ্ঘনের অভিযোগে কংগ্রেস নেতা কমলনাথ তথা মধ্যপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর কাছ থেকে ‘তারকা প্রচারকারী’ মর্যাদা কেড়ে নেওয়া হচ্ছে। এরপর থেকে তারকা প্রচারকারী হিসাবে কমলনাথকে (Kamal Nath) আর সম্মতি দেওয়া হবে না। তবে কমলনাথকে কোন প্রচারে নিয়ে গেলে তাঁর যাতায়াত, থাকা, ঘোরাফেরা সংক্রান্ত যাবতীয় খরচ বহন করবেন ওই কেন্দ্রের দলীয় প্রার্থী।

Back to top button