টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

১৫০ টাকার টিকিট কেটে কোটিপতি, রাতারাতি ভাগ্য বদল বাঁকুড়ার ইলেকট্রিক মিস্ত্রির

বাংলাহান্ট ডেস্ক : সারা রাজ্যে এই মুহূর্তে লটারি নিয়ে বিতর্ক তুঙ্গে। এমন অবস্থায় ফের একজন কোটিপতির সন্ধান পাওয়া গেল এই রাজ্যে। পেশায় ইলেকট্রিক মিস্ত্রি বাঁকুড়ার বেলিয়াতোড় থানার জগন্নাথপুর গ্রামের বাসিন্দা পূর্ণচন্দ্র ধীবর লটারিতে জিতলেন কোটি টাকা। পূর্ণচন্দ্রের ছোট ইলেকট্রিক দোকান রয়েছে। এই দোকানের রোজগারেই সংসার চলত তার। কিন্তু ১৫০ টাকার বিনিময়ে কেনা লটারির টিকিট বদলে দিল গরিব ইলেকট্রিক মিস্ত্রির জীবন।

পূর্ণচন্দ্র জানিয়েছেন, তার বাবা-মা খুব অসুস্থ। এই টাকা দিয়ে তাদের চিকিৎসা করাতে চান তিনি। অন্যদিকে, অভাবের সংসার তার। লটারির টাকার বিনিময় হাল ফেরাতে চান সংসারের। কোটিপতি এই ইলেকট্রিক মিস্ত্রি জানিয়েছেন, গ্রামের একটি ছোট্ট দোকান থেকে দেড়শ টাকার বিনিময় তিনি লটারি কেটেছিলেন। তার মনের মধ্যে একটা আশা ছিল। ভগবানের ইচ্ছায় সেই আশা পূর্ণ হয়েছে। লটারি জেতার পর খুব খুশি পূর্ণচন্দ্র ও তার পরিবার।

সাংবাদিকদের পূর্ণচন্দ্র বলেন,”এই লটারি খেলার ফল বেরিয়েছিল সোমবার। দুপুর ১টা ১৫ মিনিটে লটারি জেতার কথা জানতে পেরে আনন্দে আত্মহারা হয়ে যাই। লটারির টিকিট ও এজেন্টকে নিয়ে সুরক্ষার জন্য চলে যাই থানায়। পুলিশের কাছ থেকে সুরক্ষা দাবি করি। আমাকে বিভিন্ন সময় অনেকে সাহায্য করেছেন। এবার আমার তাদের পাশে দাঁড়ানোর পালা।”

Electrician,Bankura,Lottery,Lottery win,Huge income,Crore,Indian Rupee

কিছুদিন থেকেই লটারি নিয়ে উত্তপ্ত রাজ্য- রাজনীতি। বিরোধী দল নেতা শুভেন্দু অধিকারী লটারিতে কারচুপির অভিযোগে নিশানা করছেন রাজ্য সরকারকে। অন্যদিকে, তদন্তকারীরা খতিয়ে দেখছেন তৃণমূল নেতারা কালো টাকা সাদা করার জন্য লটারির আশ্রয় নিতেন কিনা। বর্তমানে সামান্য টাকার ক্রয় মূল্যের এই লটারি অসামান্য একটি বিষয় হয়ে উঠেছে পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতিতে।

Related Articles