টাইমলাইনভারতভাইরালভিডিও

গাছে বেঁধে বেধড়ক মারধর করা হচ্ছে হাতিকে, নৃশংস্য দৃশ্যের ভিডিও ভাইরাল নেটদুনিয়ায়

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ বর্তমানে ইন্টারনেটের দুনিয়ায় নানা সময়ে নানান দৃশ্যে ভিডিও ভাইরাল (video viral) হয়ে যায় স্যোশাল মিডিয়ায়। পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ জীব হিসাবে মানুষকে গণ্য করা হলেও, মাঝে মধ্যে এক মানুষের কর্মকান্ডের জন্য অন্য মানুষ লজ্জিত হয়ে পড়েন।

কিছুদিন আগেই কেরালার এক গর্ভবতী হাতিকে (elephant) বোমা ভর্তি খাবার খাইয়ে যে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছিল। তার প্রতিবাদে নিন্দায় সরব হয়েছিল গোটা দেশ। সেই মা হাতি নিজের গর্ভস্থ সন্তানের কষ্ট লাঘব করতে, নিজের শেষ নিঃশ্বাস পর্যন্ত পুকুরের জলে দাঁড়িয়েছিল। সেই করুণ দৃশ্যের ভিডিও দেখে চোখে জল চলে এসেছিল সকল মানুষেরই। এরপরও মানুষ শান্ত হয়নি। আবারও এক হাতিকে অত্যাচারের ভিডিও ভাইরাল হল স্যোশাল মিডিয়ায়।

বর্তমান দিনে স্যোশাল মিডিয়ায় একটি আবেগঘন মুহূর্তের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে ব্যাপকহারে। যা দেখে আবারও প্রতিবাদে সোচ্চার হয়েছে নেটনাগরিকরা। আগে দেখে নিন সেই ভিডিও-

https://platform.twitter.com/widgets.js

ঘটনাটি তামিলনাড়ুর থেক্কাপপট্টির শ্রীভিল্লিপুথুরের অন্ডাল মন্দিরের। এই মন্দিরের একটি অনুষ্ঠানের জন্য জয়মালথা নামে ১৯ বছর বয়সী একটি হাতিকে আনা হয়েছিল। ভিডিওতে দেখা যায়, সেই হাতিটিকে গাছের সঙ্গে বেঁধে বেধড়ক মারধর করছে দুই মাহুত। হাতির অপরাধ সে নাকি মাহুতের কথা শোনেনি।

স্যোশাল মিডিয়ায় শেয়ার হওয়া মাত্র ২০ সেকেন্ডের এই ভিডিওতে দেখা যায়, কিভাবে গাছের সঙ্গে বেঁধে মারা হচ্ছে হাতিটিকে। আর যন্ত্রণায় কাতর হাতিটি সমানে চিৎকার করে চলেছে। এই ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পরই একাধিক পশুপ্রেমী সংগঠনের দায়ের করা মামলার ভিত্তিতে এই দুই মাহুতকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করে, বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Back to top button