টাইমলাইনফুটবলখেলাক্রিকেট

টুইটটি মিথ্যা, কিন্তু চাইলে ম্যান ইউ সহ IPL-এর সবকটি দল এক মুহূর্তে কিনে নিতে পারেন ইলন মাস্ক

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক: সেদিন থেকে টুইটার এর মালিক হয়েছেন ইলন মাস্ক, সেদিন থেকে সোশ‍্যাল মিডিয়া সাইটগুলিতে একটি জোক খুব বেশি মাত্রায় দেখা যায়। চলতি বছরের এপ্রিল মাসের ২৫ তারিখ ৪৪ মিলিয়ন ডলারের চুক্তিতে টুইটারের মালিকে পরিণত হয়েছিলেন ইলন মাস্ক। তারপর থেকে বিজেপি-র এমএলএ কেনা নিয়ে ঠাট্টা থেকে শুরু করে আইপিএলের টিমের মালিকানা বদল, সব জায়গাতেই টেসলার প্রোডাক্ট আর্কিটেক্টের নাম জুড়ে বলা হতে থাকে যে তিনি সেটি কিনে নিচ্ছেন।

সকলেই জানেন যে ইলন মাস্ক এখন বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি। আগস্ট ১৭ তারিখ অবধি তার মোট সম্পত্তির পরিমাণ ২৭০.১ বিলিয়ন ডলার। বুধবার তাকে নিয়ে যে মীম গুলি বাজারে প্রচলিত ছিল সেরকমই একটি কথা একটি রাজনৈতিক পোস্টের সঙ্গে বলে ফেলেন এই বিলিয়নেয়ার যার পর থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় তার এই পোস্টটি পুরোপুরি ভাইরাল হয়ে যায়।

ইলন মাস্ক পোস্ট করেছিলেন যে তিনি খুব শ্রীঘ্রই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ফুটবল ক্লাবটি কিনে ফেলতে চলেছেন। এই মুহূর্তে ইংল্যান্ডের অন্যতম সেরা ক্লাবটির মালিক হচ্ছে আমেরিকান ধনকুবের পরিবার, গ্লেজার ফ্যামিলি। কিন্তু ভক্তরা এই গ্লেজার ফ্যামিলির মালিকানা নিয়ে খুব একটা সন্তুষ্ট নন। তারা মাঝেমধ্যেই অভিযোগ তুলে থাকেন যে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ফুটবল ঐতিহ্যকে সম্মান না দিয়ে শুধুমাত্র ক্লাবটিকে একটি পয়সা কামানোর উপায় হিসেবে ব্যবহার করছে বর্তমান মালিকরা। তাই খোদ ইলন মাস্কের এহেন টুইট দেখে অনেকেই আশার আলো দেখছিলেন। কিন্তু তার টুইটটি ক্রমাগত ভাইরাল হয়ে যাওয়ায় তা অবশেষে আসরে নেমে আসল ব্যাপারটি উদ্ঘাটন করেন মাস্ক নিজেই।

ইলন মাস্ক তার পূর্ববর্তী টুইটটিকে রিটুইট করে লেখেন, “বিষয়টি পরিস্কার করে দি, আমি সবসময় রিপাবলিক পার্টির বাম ভাগ এবং ডেমোক্রেটিক পার্টির ডান ভাগটা সমর্থন করে থাকি।” যারা বিশ্ব রাজনীতির খবর দেখে থাকেন তারা খুব সহজেই ব্যাপারটি বুঝতে পারবেন যে তিনি কোন দিকে ইঙ্গিত করছেন। তারপর তিনি স্বীকার করেছেন যে এই জোকসটি দীর্ঘদিন ধরে সোশ্যাল মিডিয়াতে দেখেছিলেন তিনি। তাই নিজেও মজা করার লোভ সামলাতে পারেননি। তবে যদি কোনওদিন ক্রীড়ায় বিনিয়োগ করেন তবে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড তার প্রথম পছন্দ। কারণ ছোটবেলা থেকেই এটি তার প্রিয় ক্লাব বলে জানিয়েছেন তিনি। তবে মাস্ক কথাটি মজা করে বললেও তিনি চাইলে শুধুমাত্র ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড না, এই মুহূর্তে বিশ্বের ৫০ টি সবচেয়ে মূল্যবান স্পোর্টস টিম নিজের নামে করে নিতে পারেন। তবে এই মুহূর্তে খেলাধুলা বিনিয়োগের ভাবনা নেই তার। হিসেব করে দেখা গেছে যদি মাস্ক চান তাহলে তিনি আইপিএলের সব ক’টি দলকেই এক ঝটকায় নিজের নামে করে নিতে পারেন এবং তার পরেও ভারতের নামিদামি শিল্পপতি মুকেশ আম্বানির চেয়ে তার সম্পত্তির পরিমাণ ১০৭ বিলিয়ন ডলার বেশিই থাকবে।

Related Articles