টাইমলাইনআন্তর্জাতিক

গভীর সংকটে পাক সরকার! পাকিস্তানের উপর সবরকম নিষেধাজ্ঞা জারির পথে ইউরোপীয় ইউনিয়ন

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ সমগ্র বিশ্বে আতঙ্কবাদ সৃষ্টিকারী পাকিস্তানের (Pakistan) অবস্থা আরও খারাপ হতে চলেছে। আমেরিকা এবং ইউরোপের সঙ্গে বিশ্বের বিভিন্ন মুসলিম দেশ একযোগে পাকিস্তানের বিরোধিতা করলেও, বর্তমানে পাকিস্তানের আতঙ্কবাদগ্রস্থ মনোভাবের জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়ন তাদের সম্পূর্ণরূপে ব্যান করার সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে।

ইউরোপীয় সংসদের সদস্য জর্ডন বার্ডেলা (jordan bardella) তুর্কি এবং পাকিস্তানের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার বিষয়ে হুশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, এমন দেশের বিরুদ্ধে একজোট হয়েই বিরোধীরা করা প্রয়োজন। জর্ডন বার্ডেলা ইসলামাবাদ, কুয়েত এই সকল দেশের সঙ্গে সকল প্রকার সম্পর্ক ছিন্ন করে ব্যক্তিগত সহায়তাও বন্ধ করে দেওয়া উচিত।

কিছুদিন আগে নবী হজরত মহম্মদের ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশের ঘটনায় উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল গোটা ফ্রান্স। সেই ঘটনার আঁচ ছড়িয়ে পড়েছিল বিভিন্ন দেশে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ফ্রান্সে একের পর এক আতঙ্কবাদী হামলায় বেশ কয়েকজন নিহতও হয়েছিল। এই বিষয়ের কারণে ইউরোপ সহ বিভিন্ন দেশ ইমলামের কট্টরপন্থী মানসিকতার তীব্র সমালোচনা করে।

অন্যদিকে পাকিস্তান সহ বেশ কয়েকটি মুসলিম অধ্যুষিত দেশে ফ্রান্স এবং আমেরিকার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ প্রদর্শিত হয়। এমনকি স্যোশাল মিডিয়ায় ফ্রান্সের পণ্য বয়কটেরও শ্লোগান ওঠে। পাকিস্তানও সেই বিরোধীদের তালিকায় সামিল ছিল। যার কারণে পাকিস্তান বর্তমানে ইউরোপীয় দেশের ক্রোধের শিকার হয়েছে।

কিছুদিন আগে ইউরোপীয় সংসদের সদস্য জর্ডন বার্ডেলা ইউরোপীয় সংসদে প্রশ্ন করেছেন, ‘তুর্কির রাষ্ট্রপতি যে ধরণের ব্যবহার প্রদর্শন করেছেন, তিনি কি তুর্কি, পাকিস্তান, কুয়েত, কাতারের বিরুদ্ধে কোন প্রকার অভিযোগকে কি নিজের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ বলে মনে করছেন? আমাদের আবার সমস্ত ইউরোপীয় দেশগুলকে একত্র হতে হবে, এটাই প্রয়োজন। বর্তমানে পাকিস্তান এবং তুর্কির ব্যবহারে আতঙ্কবাদ এক বড় চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে’।

Related Articles

Back to top button