টাইমলাইনখেলাক্রিকেট

“ভারত কি পারলো ICC ট্রফি জিততে?” কোহলির পক্ষ নিয়ে BCCI-কে খোঁচা প্রাক্তন পাক ক্রিকেটারের

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক: প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলির সীমিত ওভারের ক্রিকেটের অধিনায়কত্ব থেকে সরে যাওয়ার পর এক বছরের মধ্যে বিশেষ কোনো উন্নতি হয়নি ভারতীয় দলের। ভারতীয় দল সীমিত ওভারের ক্রিকেটে বেশ কয়েকটি সিরিজ জিতেছে দেশে এবং বিদেশের মাঠে। কিন্তু এশিয়া কাপ এবং টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মতো পর্যায়ে তারা মুখ থুবড়ে পড়েছে।

বিরাট কোহলি টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের দায়িত্ব ছেড়েছিলেন নিজে থেকেই। কিন্তু তাকে না জানিয়েই ওডিআই অধিনায়ক হিসেবে তাকে ছিঁড়ে ফেলার দায়িত্ব নিয়েছিল তৎকালীন চেতন শর্মার নেতৃত্বাধীন নির্বাচন কমিটি। এর ফলে অনেকেই খুব তো হয়েছিলেন এবং বিরাট কোহলির কথাতেও ছিল কষ্টের আভাস। অধিনায়ক হিসেবে সেই সময় বিরাট কোহলির তীব্র সমালোচনাও হয়েছিল। সকলেই এই কথা তখন বলছিলেন যে বিরাট কোহলিকে নেতৃত্ব থেকে ছেঁটে ফেললে তাতে আখেরে লাভ হবে ভারতীয় দলের।

বিরাট কোহলিকে অধিনায়কত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়ার পর ভারতীয় দলের কতটা লাভ হয়েছে তা তর্কসাপেক্ষ, কিন্তু বিরাট কোহলির যে অনেকটা লাভ হয়েছে তা স্পষ্টতই দেখা যাচ্ছে। শেষ কয়েক মাসে ব্যাট হাতে অসাধারন ফর্মে রয়েছেন তিনি। এশিয়া কাপ এবং টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ও ভারতের সেরা ব্যাটার ছিলেন কোহলিই।

এবার কোহলির পক্ষ নিয়ে ভারতীয় নির্বাচকদের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন প্রাক্তন পাকিস্তানি ক্রিকেটার সালমান বাট। বিরাট কোহলিকে অধিনায়কত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়ার যৌক্তিকতা নিয়েই প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন তিনি। সেই সঙ্গে আইপিএলে সাফল্য পেয়েছে বলে এই রোহিত শর্মাকে অধিনায়ক করে দেওয়ার সিদ্ধান্তও তার কাছে যুক্তিহীন বলে মনে হয়েছে।

Virat Kohli,Salman butt,T20 World Cup 2022,Team India,India vs Pakistan,ICC,ICC trophies,BCCI,Indian selectors,Rohit Sharma

নিজের ইউটিউব চ্যানেলের একটি ভিডিওতে সালমান বাট বলেছেন, “কোহলিকে ছেঁটে ফেলার কোন নির্দিষ্ট কারণে ছিল না। আইসিসি ট্রফি জেতেনি বলে যদি ওকে ছেঁটে ফেলা হয় তাহলে আমি বলব পৃথিবীতে প্রচুর এমন তারকা ক্যাপ্টেন রয়েছেন যারা নিজেদের সারা জীবনে আইসিসি ট্রফি পাননি। হয়তো কেরিয়ারের শেষদিকে এসে একজন অধিনায়ক হিসেবে দলকে আইসিসি ট্রফি জেতাতে পেরেছেন। ভারত কি বিরাট কে সরিয়ে এবার আইসিসি ট্রফি জিতে গেল? একজন এমন ক্রিকেটার যদি দলে থাকে যিনি নিজের পারফরম্যান্সের মধ্য দিয়ে বাকিদের উদ্বুদ্ধ করতে পারবেন তাহলে তাকে অধিনায়কত্ব থেকে সরিয়ে ফেলার কোনও যুক্তি আমি অন্তত দেখতে পাই না।”

Related Articles