টাইমলাইনবিধানসভা নির্বাচনভিডিওরাজনীতি

ত্রিপুরায় ব্যাপক শক্তিবৃদ্ধি তৃণমূলের, মমতার উপস্থিতিতে কংগ্রেস ছেড়ে ঘাসফুলে যোগ প্রভাবশালীদের

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ বছর ঘুরলেই ত্রিপুরায় বিধানসভা নির্বাচন (Assembly Election)। হাতে গোনা কিছু দিনের অপেক্ষা মাত্র। ইতিমধ্যেই সে রাজ্যে বেজে গেছে ভোটের দামামা। জোর কদমে চলছে ভোট প্রস্তুতি, তার সাথেই পাল্লা দিয়ে চলছে দল বদলির খেলা।

দিল্লির লোকসভায় কক্ষ সমন্বয়ের বার্তা দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী (Mamata Banerjee)। তবে হল উল্টোপুরান। মমতা-অভিষেকের উপস্থিতিতে ত্রিপুরার একঝাঁক কংগ্রেস নেতা যোগ দিলেন তৃণমূলে। সাথেই কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলের ঝাণ্ডা হাতে তুলে নিলেন ত্রিপুরা কংগ্রেসের প্রাক্তন প্রদেশ সভাপতি তথা আইনজীবী পীযূষকান্তি বিশ্বাস (Pijush Kanti Biswas)।

তৃণমূলের ত্রিপুরার ইউনিটের তরফে টুইট করে এই খবর জানানো হয়েছে। সঙ্গে লেখা হয়েছে “ত্রিপুরার উন্নয়নের লক্ষ্যে আমাদের পরিবার আজ আরও শক্তিশালী হয়ে উঠল। মা-মাটি-মানুষের স্বার্থে আমাদের সঙ্গে যোগ দিলেন প্রাক্তন ত্রিপুরা প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি পীযূষ কান্তি বিশ্বাস-সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। সকলকে দলে আন্তরিকভাবে স্বাগত।”

কোন কোন নেতা হাত ছেড়ে যোগ দিলেন ঘাসফুলে? সূত্রের খবর, এদিন মোট ৬ জন ত্রিপুরার প্রবীণ কংগ্রেস নেতা যোগ দিয়েছেন তৃণমূলে। পীযূষকান্তি বিশ্বাসের সঙ্গে ঘাসফুলে যোগ দিয়েছেন তেজেন দাস, অনন্ত বন্দ্যোপাধ্যায়, বিমল রুদ্র পাল, পূর্ণিতা চাকমা এবং সমরেন্দ্র ঘোষ। তেজেন দাস এবং অনন্ত বন্দ্যোপাধ্যায় ত্রিপুরা প্রদেশ কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক, পূর্ণিতা চাকমা ত্রিপুরা মহিলা কংগ্রেসের কার্যকরী সভাপতি, সমরেন্দ্র ঘোষ ত্রিপুরা যুব কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

অন্যদিকে এই খবরে শীলমোহর দিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস তরফে একটি বিবৃতিতে জানানো হয়েছে , ভারতের প্রাক্তন সহকারী সলিসিটর জেনারেল পীযূষকান্তি বিশ্বাস এবং ত্রিপুরা হাইকোর্ট বার কাউন্সিলের প্রাক্তন সভাপতিকে খুব শীঘ্রই ত্রিপুরায় তৃণমূলের সভাপতি হিসেবে নিয়োগ করা হবে। ২৩ এর বিধানসভা নির্বাচন পূর্বে এই দলবদল যে যথেষ্টই তাৎপর্যপূর্ণ এমনটাই মনে করছে রাজনৈতিক মহলের অধিকাংশ।

Related Articles