টাইমলাইনবিনোদন

আমিরকে নকল করতে গিয়ে বিপত্তি! কিডনির কাজ বন্ধ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন পাক অভিনেতা ফাওয়াদ খান

বাংলাহান্ট ডেস্ক: চরিত্রের প্রয়োজনে কত কিছুই না করতে হয় অভিনেতা অভিনেত্রীদের। এক নিমেষে ওজন বাড়ানো থেকে এক ধাক্কায় কয়েক কেজি কমিয়ে ফেলা, এসবে অভ‍্যস্ত থাকতে হয় তাদের। হলিউড অভিনেতা ক্রিশ্চিয়ান বেল থেকে বলিউডের আমির খান (Aamir Khan), চরিত্রের প্রয়োজনে বেশ কয়েক কেজি ওজন বাড়িয়ে চমকে দিয়েছিলেন দুই অভিনেতা। কিন্তু তাঁদের নকল করতে গিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হলেন পাকিস্তানি অভিনেতা ফাওয়াদ খান (Fawad Khan)।

শুধু পাক মুলুকে নয়, সুদর্শন ফাওয়াদ বলিউডেও বেশ জনপ্রিয়। ‘খুবসুরত’ দিয়ে ডেবিউ এর পর কাপুর অ্যান্ড সনস এবং অ্যায় দিল হ‍্যায় মুশকিল ছবিতেও অভিনয় করেছিলেন তিনি। তারপরেই অবশ‍্য পাক শিল্পীদের ভারতীয় ছবিতে অভিনয়ে নিষেধাজ্ঞা জারি হওয়ায় আর কোনো হিন্দি ছবিতে অভিনয় করেননি ফাওয়াদ।


কিন্তু বলিউড অভিনেতা আমিরের নকল করতে গিয়েছিলেন তিনি। আর তাতেই ঘটে বিপত্তি। ‘দ‍্য লেজেন্ড অফ মৌলা জাট’ ছবিতে অভিনয় করতে চলেছেন ফাওয়াদ। তার জন‍্য বেশ কয়েক কেজি ওজন বাড়াতে হয়েছিল তাঁকে। কিন্তু হাতে সময় কম থাকায় ভুল পথ বেছে নিয়েছিলেন তিনি। আর তাতেই অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন ফাওয়াদ।

৭৩-৭৫ কেজি থেকে খুব কম সময়ের মধ‍্যেই ১০০ কেজি ওজন বাড়িয়ে নিয়েছিলেন ফাওয়াদ। কিন্তু এতে তাঁর স্বাস্থ‍্যের উপরে খুব খারাপ প্রভাব পড়েছিল। এক সাক্ষাৎকারে ফাওয়াদ বলেন, খুব ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তিনি। আর কখনো এমন ভুল তিনি করবেন না।

ফাওয়াদ জানান, তিনি ডায়াবেটিক। খুব কম সময়ের মধ‍্যে অস্বাভাবিক হারে ওজন বাড়াচ্ছিলেন তিনি। ফাওয়াদ বলেন, “আমি ক্রিশ্চিয়ান বেল নই। কিন্তু আমি ওঁকে নকল করেছিলাম, এমনকি আমির খানকেও। এইসব ট্রান্সফরমেশনগুলোর নেপথ‍্যে একটা অন্ধকার দিক আছে। আর মানুষের জানা উচিত এতে স্বাস্থ‍্যের উপরে কী ভয়াবহ প্রভাব পড়ে। মাত্র দশদিন পরেই আমাকে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়। আমার কিডনি কাজ করা বন্ধ করে দিয়েছিল।”

হাসপাতাল থেকে কিছুদিন পর ছাড়া পেয়ে গেলেও সম্পূর্ণ সুস্থ হতে তিন মাস সময় লেগে গিয়েছিল ফাওয়াদের। জোরে হাঁটতে পারতেন না। চিন্তা করা সম্পূর্ণ বারণ ছিল। নিজে তো বটেই, অন‍্যকেও এমন ভুল সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন‍্য আর কখনোই বলবেন না বলে জানান পাকিস্তানি অভিনেতা।

Related Articles