টাইমলাইনখেলা

জল্পনার অবসান! ভারতীয় ফুটবলের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিলো FIFA

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক: কিছুদিন আগেই ভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনের কর্মক্ষেত্রের সিদ্ধান্তে তৃতীয় পক্ষের হস্তক্ষেপের কারণে ক্ষুব্ধ হয়েছিল বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল ফেডেরেশন অফ অ্যাসোসিয়েশন ফুটবল (FIFA)। শাস্তি হিসেবে কঠোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিল তারা। ভারতীয় ফুটবলের ওপর অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিতাদেশ লাগিয়ে দিয়েছিল ফিফা। ভারতের ক্লাবগুলির এফসির কোন প্রতিযোগিতায় খেলা, ভারতের পুরুষ-মহিলা মিলিয়ে সিনিয়র ও জুনিয়র ফুটবল দলগুলির আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলা এবং আসন্ন অক্টোবরে অনূর্ধ্ব ১৭ মহিলা বিশ্বকাপ ভারতের মাটিতে আয়োজন করার ওপর নিষেধাজ্ঞা পড়ে গিয়েছিল। ফলে খুবই দুশ্চিন্তায় পড়ে গিয়েছিলেন ভারতীয় ফুটবলপ্রেমীরা।

কিন্তু এখন স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে পারেন ভারতীয় ফুটবল প্রেমীরা। ২৬শে আগস্ট, শুক্রবার রাতেই ফিফা কাউন্সিল ব্যুরো, অল ​​ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারেশনের (AIFF) ওপর অযাচিত তৃতীয় পক্ষের প্রভাবের কারণে যে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল, তা অফিসিয়াল বিবৃতি দিয়ে তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এআইএফএফ-এর কার্যনির্বাহী কমিটির ক্ষমতা গ্রহণের জন্য যে প্রশাসক কমিটির ফিফা আদেশের বিরুদ্ধে গিয়ে তৈরি করা হয়েছিল, সেটিকে ইতিমধ্যেই বাতিল করা হয়েছে। এআইএফএফ প্রশাসন তাদের নিজস্ব এবং আভ্যন্তরীণ গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলির ব্যাপারে নিজেরাই সম্পূর্ণভাবে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতা পুনরুদ্ধার করেছে বলে ফিফাকে নিশ্চিত করেছে। খুব দ্রুতই নির্বাচন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়ে যাবে।

এই বিষয় সামনে আসার পরেই ফিফা আর নিষেধাজ্ঞা বজায় রাখার প্রয়োজনীয়তা অনুভব করছে না। যদিও ফিফা এবার থেকে এএফসির সাথে মিলে ভারতীয় ফুটবলের পরিস্থিতির উপর আরও কড়া নজরদারি চালিয়ে যাবে বলে জানিয়েছে। আপাতত তারা ভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনকে ঠিক সময়মত নির্বাচন আয়োজন করার নির্দেশ দিয়েছে।

এই সিদ্ধান্তের ফলস্বরূপ, পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী আসন্ন অক্টোবর মাসের ১১ তারিখ থেকে ৩০ তারিখ অবধি ভারতের মাটিতে যে ফিফা অনূর্ধ্ব-১৭ মহিলা বিশ্বকাপ আয়োজন হওয়ার কথা ছিল, তাতেও কোনও বাঁধা থাকছে না। এর ফলে এটিকে মোহনবাগান ক্লাবের কলকাতার যুবভারতী স্টেডিয়ামে এফসি কাপের ইন্টার জোনাল সেমিফাইনালের প্রতিপক্ষ ‘কুয়ালা লামপুর সিটি’র বিরুদ্ধে মাঠে নামতে আর কোনো বাধাই থাকছে না। ভারতের জাতীয় দলের অক্টোবর মাসে সিঙ্গাপুরের বিরুদ্ধে যে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচ খেলার কথা ছিল সেই ম্যাচটির আয়োজনে থাকছে না বাধা। স্বাভাবিকভাবেই খুশি ভারতীয় ফুটবলপ্রেমীরা।

Related Articles