fbpx
টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

নেতাজী বেঁচে থাকলে সিএএ হতো না :বললেন ফিরহাদ হাকিম

নেতাজির জন্মদিন নিয়ে প্রতিবারের মতন এবারেও প্রত্যেক ভারতবাসীর উন্মাদনা তুঙ্গে। দেশের সাম্প্রতিক পরিস্থিতি এখন অচল সিএএ ,এনআরসি ,সিএবি, এনপিআর নিয়ে উত্তাল দেশের আমজনতা। আর এই পরিস্থিতিতে সরকার পক্ষ চুপ। কিন্তু বিরোধী দলের পক্ষ থেকে নেওয়া হয়েছে একাধিক পদক্ষেপ। কিন্তু সেই নিয়ে কারো কোনও ভ্রুক্ষেপ নেই। আর সেই নিয়ে আজ আবার মন্তব্য করেন ফিরহাদ হাকিম।

আজ নেতাজীর জন্মদিন উপলক্ষে তিনি বলেন “আজ আমাদের দেশে নেতাজী থাকলে সিএএ হতে দিতেন না”। বারংবার প্রতিবাদ করে কিছুই লাভ না হলেও দেশের আমজনতা এখনো তেমে নেই। তারা প্রতিদিন তাদের প্রতিবাদের ভাষা বদলাচ্ছে।

 

 

কখনও প্রতিবাদের ভাষা হয়েছে গান, আর কখনও হয়েছে কবিতা, আবার আগামী সপ্তাহে মমতা ব্যানারজীর উদ্যোগে রঙ তুলি নিয়ে শুরু হবে প্রতিবাদ। একের পর এক নানাভাবে প্রতিবাদ করার ফলে দেশের অবস্থা কিছুটা হলেও বদলানো গিয়েছে। আর এখন সব কিছুতেই যেন সিএএ ,এনআরসি ,সিএবি, এনপিআর নিয়ে চলছে। আজ নেতাজীর ১২৩ জন্মদিন উপলক্ষে মেয়র ফিরহাদ হাকিম অনেক কথা বলেন, “ নেতাজি সর্বধর্ম সমন্বয় ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির প্রতীক ৷ তাঁর একপাশে থাকতেন ধিঁল্লোন, আরেক পাশে শাহনওয়াজ খান ছিলেন ৷

আজ তিনি থাকলে এই সিএএ হতোই না ৷ যারা এই সব আইন করে দেশভাগের চক্রান্ত করছেন, তারা নেতাজিকে অপমান করছেন”।  আজ জায়গায় জায়গায় নেতাজীর জন্মদিন উপলক্ষে তার ছবি ফুলের মালা দিয়ে সম্মান জানানো হয়। তারপর আজ নেতাজীর জন্মদিন উপলক্ষে জাতীয় ছবি বলে ছুটি ঘোষনা করেন মমতা সরকার। সব মিলিয়ে একটা প্রতিবাদি দিনের মতন প্রতিবাদি মন্তব্য করে আবার বুঝিয়ে দেওয়া হল আমাদের দেশ নেতাজীকে হারিয়েছেন । তবে তার দেওয়া সাহস আর প্রতিবাদের ভাষা আমরা আজও আমাদের রক্তে বয়ে বেড়াচ্ছি।

Back to top button
Close
Close