টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

শহীদ দিবসে তৃণমূলের কর্মীদের মধ্যে ব্যাপক গোলাগুলি, প্রাণ হারালেন এক মহিলা সহ দুই! আহত ১২

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ আজ তৃণমূলের (All India Trinamool Congress) শহীদ দিবস। আর আজকের দিনই ঘটে গেল এক মর্মান্তিক ঘটনা। হাড়োয়ায় তৃণমূলের শহীদ দিবসে পতাকা তোলা নিয়ে দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে এক মহিলা সহ দুজন গুলিবিদ্ধ হয়ে প্রাণ হারালেন। দুই পক্ষের ১২ জন এই সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়েছে। আহতদের গ্রামীণ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করানো হয়েছে।

বুধবার একুশে জুলাই গোটা বাংলা এবং ভারতের কয়েকটি রাজ্যের মতো হাড়োয়ার ট্যাংরামারি গ্রামে শহীদ দিবসের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। সেই অনুষ্ঠানেই পতাকা তোলা নিয়ে তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর মধ্যে তুমুল সংঘর্ষ বাঁধে। সেই সংঘর্ষ এতটাই ভয়াবহ হয়ে যায় যে, সেখানে গুলি পর্যন্ত চলে। পুলিশ সূত্রের খবর অনুযায়ী, লক্ষ্মী সর্দার (৬২) এবং সন্ন্যাসী সর্দার (৩৮) দলেরই অপর গোষ্ঠীর কর্মীদের চালানো গুলিতে প্রাণ হারান।

প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, নির্বাচনের আগে হাওয়া বদল হবে ভেবে বেশ কিছু তৃণমূল কর্মী বিজেপিতে নাম লিখিয়েছিলেন। যদিও, বিজেপি ক্ষমতায় না ফেরায় তাঁর স্থানীয় এক প্রভাবশালী নেতার হাত ধরে আবারও তৃণমূলে যোগ দেন। আর এই নিয়ে বিগত কিছুদিন ধরে হাড়োয়ার মোহনপুর পঞ্চায়েত এলাকায় দুই গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ চলছিল। মাঝে-সাঝেই এলাকায় চলত বোমা-গুলি। তবে, এবার সেই সংঘর্ষ ভয়াবহ আকার ধারণ করে যার জেরে দুজন প্রাণ হারান আর ১২ জন আহত হন।

জানা গিয়েছে যে, দুপুর আড়াইতে নাগাদ দলীয় পতাকা তোলা এবং খাওয়াদাওয়া সেরে এক পক্ষ বাড়ির দিকে রওনা দেয়। তখনই অন্য আরেকটি গোষ্ঠী তাঁদের উপর আচমকাই হামলা করে দেয়। মুড়িমুড়কির মতো চলতে থাকা বোমা-গুলি। একটি গুলি সন্ন্যাসী সর্দারের বুকে এসে লাগে। আরেকটি গুলি লাগে লক্ষ্মী সর্দারের পেটে। হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক দুজনকেই মৃত ঘোষণা করেন। তৃণমূলের শহীদ দিবসে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে শহীদ হলেন আরও দুই তৃণমূল কর্মী।

Related Articles

Back to top button