টাইমলাইনভারতঅন্যান্য

ভারতের এই ৯টি ট্রেনের কাছে ফেল ফাইভ স্টার হোটেলও! একটা টিকিটের দামেই কেনা যাবে চারচাকা গাড়ি

বাংলা হান্ট ডেস্ক: গত ২১ জুন থেকে, IRCTC ভারত গৌরব ট্যুরিস্ট নামের একটি ট্রেন পরিষেবা শুরু করেছে। এই ট্রেনটি দিল্লির সফদরজং রেলওয়ে স্টেশন থেকে ছেড়ে “শ্রী রামায়ণ যাত্রা”-র মাধ্যমে যাত্রীদের নেপালের জনকপুরে নিয়ে যাবে। মোট ৬০০ আসন বিশিষ্ট এই ট্রেনটি ৮ টি রাজ্যের ১২ টি বড় শহরের মধ্য দিয়ে যাবে বলে জানা গিয়েছে। সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, এই ট্রেনের প্রতিটি সিটের ভাড়া হল ৬২,৩৭০ টাকা।

এমতাবস্থায়, আমাদের দেশে এমন অনেক বিলাসবহুল ট্রেন রয়েছে যেগুলির টিকিটের দাম শুনলে কার্যত ভিরমি খেতে হয়। এমনকি, একটি টিকিটের দামে আপনি খুব সহজেই একটি নতুন গাড়িও কিনে নিতে পারেন। বর্তমান প্রতিবেদনে আমরা ঠিক সেইরকমই ৯ টি ভারতীয় বিলাসবহুল ট্রেনের প্রসঙ্গ উপস্থাপিত করব। যেগুলি পাল্লা দিতে পারে যে কোনো ফাইভ স্টার হোটেলকেও।

১. রয়্যাল রাজস্থান অন হুইলস (Royal Rajasthan on Wheels):
রাজস্থান ট্যুরিজম এবং ভারতীয় রেল দ্বারা চালিত এই বিলাসবহুল ট্রেনটি কোনো ফাইভ স্টার হোটেলের চেয়ে কম নয়। এই ট্রেনটি তার সুযোগ-সুবিধা এবং রাজকীয়ভাবে যাত্রার জন্য পরিচিত। ট্রেনটি নতুন দিল্লি থেকে যাত্রা শুরু করে রাজস্থানের জনপ্রিয় পর্যটনস্থল যোধপুর, চিতোরগড়, উদয়পুর, রণথম্বোর এবং জয়পুরের পাশাপাশি মধ্যপ্রদেশের খাজুরাহো এবং উত্তরপ্রদেশের আগ্রা ছাড়াও বারাণসীতে যাত্রা করে। এই রাজকীয় ট্রেনটিতে একটি স্টোর, সেলুন, লাউঞ্জ বার, এলসিডি টিভি, এসি, বেডরুম, জিম, স্পা এবং বার রয়েছে। এই ট্রেনের একটি টিকিটের জন্য আপনাকে কমপক্ষে ৩,৬৩,৩০০ টাকা খরচ করতে হবে। পাশাপাশি, ট্রেনটির টিকিটের সর্বোচ্চ মূল্য হল ৭,৫৬,০০০ টাকা।

২. প্যালেস অন হুইলস (Palace On Wheels):
নাম থেকেই বোঝা যাচ্ছে যে, এই ট্রেনটি কার্যত একটি চলমান প্রাসাদ। এটি বিশ্বের অন্যতম একটি বিলাসবহুল ট্রেন হিসেবে বিবেচিত হয়। এই ট্রেনটি আধুনিক জীবনের সমস্ত সুযোগ-সুবিধা দিয়ে সজ্জিত রয়েছে। এখানে ২ টি ডাইনিং রুম, রেস্টুরেন্ট, বার এবং সেলুনের সুবিধা উপলব্ধ রয়েছে। দেশের রাজধানী দিল্লি থেকে ছুটে চলা এই ট্রেনটি আগ্রা, ভরতপুর, যোধপুর, জয়সালমের, উদয়পুর, চিতোরগড়, সওয়াই মাধোপুর এবং জয়পুরে যাত্রা করে। এই ট্রেনের টিকিটের দাম হল ৫,২৩,৬০০ টাকা থেকে ৯,৪২,৪৮০ টাকা।

৩. মহারাজা এক্সপ্রেস (Maharaja Express):
মহারাজা এক্সপ্রেসকে ভারতের সবচেয়ে ব্যয়বহুল এবং বিলাসবহুল ট্রেন হিসেবে মনে করা হয়। প্রতিটি ভারতীয় একবার হলেও এই ট্রেনে ভ্রমণ করতে চান। ট্রেনটিতে একটি বড় ডাইনিং রুমের সাথে বার, লাউঞ্জ এবং এলসিডি টিভির সুবিধা রয়েছে। এছাড়াও, ইন্টারনেট সুবিধা সহ এই ট্রেনে বিলাসবহুল বাথরুমও তৈরি করা হয়েছে। রাজধানী দিল্লি থেকে আগ্রা, বারাণসী, জয়পুর, রণথম্ভোর, জয়পুর এবং মুম্বাই যাওয়ার এই ট্রেনে ফোনের সাহায্যেই সমস্ত সুবিধা পাওয়া যায়। এই ট্রেনের সর্বনিম্ন ভাড়া হল ৫,৪১,০২৩ টাকা। অন্যদিকে, যদি এর প্রেসিডেন্সিয়াল স্যুট বুক করা হয়, তাহলে খরচ হবে ৩৭,৯৩,৪৮২ টাকা।

৪. ডেকান ওডিসি (Decan Odysseys):
ডেকান ওডিসি, বিশ্বের সবচেয়ে বিলাসবহুল ট্রেনগুলির মধ্যে একটি। এই ট্রেন ভারতীয় রেল দ্বারা চালিত হয়। ট্রেনটিতে মোট ২১ টি বিলাসবহুল কোচ রয়েছে। মহারাষ্ট্র, রাজস্থান এবং গুজরাটে সফর করে ট্রেনটি। এখানে পাঁচতারা হোটেল, দু’টি রেস্তোরাঁ, ইন্টারনেট সুবিধা, বার এবং একটি ব্যবসায়িক কেন্দ্র রয়েছে। এর টিকিটের জন্য সর্বনিম্ন ৫,১২,৪০০ টাকা এবং সর্বোচ্চ ১১,০৯, ৮৫০ টাকা খরচ করতে হবে।

৫. গোল্ডেন চ্যারিয়ট (Golden Chariot):
এই ট্রেনটি ভারতীয় রেলওয়ে এবং কর্ণাটক সরকার যৌথভাবে পরিচালিত করে। এটিও বিশ্বের অন্যতম একটি বিলাসবহুল ট্রেন। এই ট্রেনটি দক্ষিণ ভারতের কর্ণাটক, কেরালা, তামিলনাড়ু, পুদুচেরি এবং গোয়ার মত জায়গাগুলিতে যাত্রা করে। ২০১৩ সালে এশিয়ার বিলাসবহুল ট্রেনের খেতাবজয়ী এই ট্রেনের সর্বনিম্ন ভাড়া হল ৩,৩৬,১৩৭ টাকা এবং সর্বোচ্চ ভাড়া হল ৫,৮৮,২৪২ টাকা।

৬. মহাপরিনির্বাণ এক্সপ্রেস (Mahaparinirvan Express):
এই বিলাসবহুল বিশেষ ট্রেনটি বৌদ্ধ ভারতে যাত্রা সম্পন্ন করে। এই ট্রেনে মূলত ৭ দিনের প্যাকেজ দেওয়া হয়। এর প্রথম শ্রেণির টিকিটের জন্য ৭৫,০০০ টাকা এবং দ্বিতীয় শ্রেণির জন্য ৬০,০০০ টাকা খরচ করতে হয়।

৭. রয়্যাল ওরিয়েন্টাল ট্রেন: (Royal Oriental Train):
ভারতের প্রাচীনতম এবং বিলাসবহুল ট্রেন হিসেবে পরিচিত এই ট্রেনটি ব্রিটিশ আমলে চালু হয়েছিল।১৮৫৫ খ্রিস্টাব্দ থেকে চলা এই ট্রেনটি দিল্লি থেকে রাজস্থান ও গুজরাটের প্রতিটি বড় শহর পরিদর্শন করে। এর টিকিটের দাম হল দৈনিক ৮,০০০ টাকা।

৮. ফেয়ারি কুইন এক্সপ্রেস (Fairy Queen Express):
এই ট্রেনটি ছোট ভ্রমণের জন্য উপযুক্ত। এই ট্রেন দিল্লি থেকে আলওয়ার যাতায়াত করে। এটিতে ২ দিনের ভ্রমণের ভাড়া হল ১১,০০০ টাকা।

৯ পাঞ্জ তখত দর্শন ট্রেন (Panj Takht Darshan Train):
শিখ সম্প্রদায়ের ধর্মীয় দর্শনের জন্য চলা এই ট্রেনটি দেশের পাঁচটি প্রধান গুরুদ্বার পরিদর্শন করে। দিল্লি থেকে অমৃতসরগামী এই ট্রেনে পাঞ্জাবি সংস্কৃতির আভাস পাওয়া যায়। এর ভাড়া হয় ১৫,০০০ টাকা পর্যন্ত।

Related Articles

Back to top button