টাইমলাইন

ভারতের অখণ্ডতাকে অস্বীকার করে বিচ্ছিন্নতাবাদী মন্তব্য করল flipkart

flipkart, এই ই-কমার্স সংস্থাটিকে আমরা সকলেই কম বেশি জানি। এবার এই সংস্থার বিরুদ্ধেই গুরুতর রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ উঠল। নিজেদের মন্তব্যে ভারতের অখণ্ডতাকে অস্বীকার করল সংস্থাটি। যা নিয়ে ইতিমধ্যেই তুমুল নিন্দার ঝড় সোশ্যাল মিডিয়া সহ বিভিন্ন মহলে।

কোহিমাতে কেন পরিষেবা দেয় না ফ্লিপকার্ট? এই প্রশ্নের উত্তরে সংস্থা জানিয়েছিল, নাগাল্যান্ড ভারতের বাইরে তাই পরিষেবা দেওয়া হয় না। ভারতের পূর্বপ্রান্তে অবস্থিত এই ছোট্ট রাজ্যটি বরাবরই ভারতের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ।।যদিও এই রাজ্যের বহু মানুষ এখনো তা স্বীকার করে না। নাগা বিচ্ছিন্নতাবাদী জঙ্গিরা স্বশাসন, পৃথক পতাকা ও পৃথক সংবিধানের দাবির পক্ষে সওয়াল চালাচ্ছে। ফ্লিপকার্টের এই বক্তব্য সেই ইস্যুর পক্ষেই সওয়াল করছে বলে মনে করছেন অনেকেই।

তনে ফ্লিপকার্টের এই মন্তব্যে খুশি হয়েছেন বিচ্ছিন্নতাবাদীরা। তাদের অনেকেই লিখেছেন, আমরা এখনো স্বাধীন নই স্বাধীনতার আগেই তা দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ। জনপ্রিয় গায়ক অ্যালোবো নাগা ফেসবুকে লিখেছেন, ‘‘ধন্যবাদ এত তাড়াতাড়ি স্বাধীনতা দিয়ে দেওয়ার জন্য।’’৷

যদিও বিষয়টির গুরুত্ব বুঝে ভুল স্বীকার করেছে ফ্লিপকার্ট। তবুও এই সংস্থার বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন নাগাল্যান্ডের ডিজি থেকে শুরু করে ত্রিপুরার রাজবংশের বর্তমান বংশধর প্রদ্যোৎ বিক্রম মাণিক্য দেববর্মা । অনেকেই মনে করছেন, ফ্লিপকার্টের এই মন্তব্য দেশের বিভিন্ন প্রান্তে থাকা বিচ্ছিন্নতাবাদীদের অক্সিজেন জোগাবে। এই বক্তব্য রাষ্ট্রদ্রোহের সামিল। ইতিমধ্যেই বিষয়টি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের কাছেও পৌঁছে গিয়েছে। অভিযোগ কারীদের সাফ বক্তব্য, এমন স্পর্শ কাতর বিষয় নিয়ে মন্তব্য করার পর শুধুমাত্র সামাজিক মাধ্যমে ক্ষমা  চেয়ে দায় এড়াতে পারে না ফ্লিপকার্ট।

 

Back to top button