টাইমলাইনভারত

টানা ১৬ দিন অপরিবর্তিত তেলের দাম

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ লকডাউনের কারণে পেট্রোল ও ডিজেলের চাহিদা তলানিতে নেমে এসেছে। আজ টানা 16 দিন পেট্রোল এবং ডিজেলের (petrol diesel price) দামের কোনও পরিবর্তন নেই। তেলের দাম হ্রাসের বৃহত্তম কারণ হ’ল বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাস, যা ইতিমধ্যেই মহামারির আকার নিয়েছে। এই কারনে অপরিশোধিত তেলের দাম 17 বছরের নীচে পৌঁছেছে।

আজ কলকাতায় এক লিটার পেট্রোলের দাম ৭২.২৯ টাকা। একই সাথে ডিজেলের দাম প্রতি লিটারে 6৪.৬২ টাকা।

করোনার কারণে ইতিমধ্যে বিশ্বজুড়ে কয়েক দফায় কমেছে অপরিশোধিত তেলের দাম কিন্তু সেই দাম কমার সুবিধা পায়নি ভারতবাসী । আশা করা হয়েছিল এই পরিস্থিতিতে ভারতের বাজারে উল্লেখযোগ্য ভাবে কমবে পেট্রোল ও ডিজেলের দাম। কিন্তু তেলের দাম কমছে না বরং পেট্রোল ও ডিজেলের দাম শুল্ক আরোপ করছে কেন্দ্রীয় সরকার। ফিনান্স বিলে একটি সংশোধনী এনে আবগারি শুল্ক সীমা বৃদ্ধির অনুমোদন দেয়। যার ফলে পেট্রোল এবং ডিজেলের উপর 8 টাকা অবধি শুল্ক আরোপ করতে পারবে কেন্দ্রীয় সরকার। অপরিশোধিত তেলের দাম কমে যাওয়ার সুবিধা পেট্রোল এবং ডিজেলের দামে পাওয়া যাবে না।
প্রসঙ্গত, গত ১৪ ই মার্চ, সরকার পেট্রল ও ডিজেলের উপর শুল্কের মূল্য প্রতি লিটারে তিন টাকা বাড়িয়েছিল। তিন টাকার এই বৃদ্ধির ফলে সরকার চলতি অর্থবছরে ৪০,০০০ কোটি ভারতীয় টাকা অতিরিক্ত রাজস্ব পাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, সরকার যদি পেট্রোল এবং ডিজেলের উপরে আট টাকা পর্যন্ত শুল্ক আরোপ করে, তবে অপরিশোধিত তেলের বর্তমান মূল্য স্তর বিবেচনায় এই অর্থবর্ষের প্রথম অংশে একলাখ কোটি টাকা অতিরিক্ত রাজস্ব আদায় করতে পারবে। এই বিপুল পরিমাণ টাকা করোনা আক্রান্ত খাতের জন্য সরকার ব্যবহার করতে পারবে

Back to top button