টাইমলাইনভারত

উত্তরপ্রদেশ থেকে উঠে এল অমানবিকতার ছবি, হাসপাতালের গাড়ি না মেলায় ঠেলায় উঠল মৃতদেহ

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের (Yogi Adityanath) উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) সাম্বাল জেলার এক সরকারি হাসপাতালের অবহেলার চিত্রের ভাইরাল ভিডিও (Viral video) ঘুরছে স্যোশাল মিডিয়ার পর্দায়। সিস্টেম যেখানে নিজের দায় অস্বীকার করে, সেখানে মানুষকেই এগিয়ে গিয়ে দায়িত্ব নিতে হয়। করোনার আবহের মধ্যেই এক হাসপাতালের চরম অমানসিকতার চিত্র দেখা গেল উত্তরপ্রদেশের এক হাসপাতালে।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের উপর উঠছে অমানবিক হওয়ার অভিযোগ
অসুস্থ অবস্থায় এক মহিলাকে তার পরিবারের লোকজন হাসপাতালে নিয়ে যায়। কিন্তু সেখানে গিয়ে চিকিৎসক তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে দেখেন, তিনি মারা গেছেন। করোনা সন্দেহে তার রক্তের নমুনা নেওয়া হয় পরীক্ষা করবার জন্য। পরীক্ষায় করোনা নেগেটিভ আসে। কিন্তু তাঁকে নেওয়ার জন্য হাসপাতাল থেকে কোন গাড়ি দেওয়া হয়নি।

প্রশ্ন ওঠে হাসপাতালের পরিকাঠামোর উপর
অগত্যা ওই মহিলার মরদেহকে তার পরিবারের লোকরা একটি ঠেলা গাড়িতে করে সেখান থেকে নিয়ে যায়। এই দৃশ্য দেখা মাত্রই ভিডিও করেন এক ব্যক্তি। এই ভিডিও স্যোশাল মিডিয়ায় প্রকাশ পেতেই তা ভাইরাল হয়ে যায়। প্রশ্ন উঠতে থাকে যোগীর রাজ্যের সরকারি হাসপাতালের বিরুদ্ধে। হাসপাতালের চরম গাফিলতির প্রশ্ন উঠতে থাকে।

ঠেলায় করে নিয়ে যাওয়া হয় মহিলার মৃতদেহ
মৃত মহিলার জামাই বরেলি সারাইয়ের নিবাসী প্রেমপাল জানিয়েছেন, তার শাশুড়ি জানকী দেবী বিলারীর বাসিন্দা ছিলেন। শ্বশুরমশাই আগেই মারা গিয়েছিলেন। এবং সেই থেকে তারা একসঙ্গেই থাকেন। শুক্রবার সকাল ১১ টা নাগাদ শাশুড়ির শারীরিক অবস্থার অবন্নতির কারণে তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যায়। সরকারী হাসপাতালে নিয়ে গেলে, তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করে। কিন্তু মৃত দেহ নিয়ে যাওয়ার জন্য কোন রকম গাড়ির ব্যবস্থা করে না হাসপাতালা কর্তৃপক্ষ। শেষে তারা একটি ঠেলায় করে শাশুড়ির মৃতদেহ নিয়ে যায়।

Back to top button