টাইমলাইনভারত

নির্ভয়াকান্ডের ছায়া উত্তরপ্রদেশে, যৌনাঙ্গে রড ঢুকিয়ে, পাঁজর ও পায়ের হাড় ভেঙে গণধর্ষণ

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ দিল্লিতে (delhi) নির্ভয়া গণধর্ষণের (nirbhaya gang-rape) ঘটনা নাড়িয়ে দিয়েছিল গোটা দেশকে। এবার একই কায়দায় গণধর্ষণ উত্তরপ্রদেশে (uttar Pradesh) । নির্যাতিতাকে চলন্ত গাড়িতে ধর্ষণ করে তার যৌনাঙ্গে ঢুকিয়ে দেওয়া হয়েছে রড। ভেঙে দেওয়া হয়েছে পাঁজর ও পায়ের হাড়।

rape 5 Bangla Hunt Bengali News
ছবি প্রতীকী

রবিবার উত্তরপ্রদেশের বদায়ুঁ জেলায় এই ঘটনা ঘটেছে। মহিলার পিতা সত্যনারায়ণ অঞ্চলে পরিচিত পুরোহিত। বাবার কাছেই পুজো দিতে যান ঐ মহিলা। অনেক রাত পর্যন্ত বাড়ি না ফেরায় শেষ পর্যন্ত থানায় যান মহিলার পরিবারের সদস্যরা।

ঘটনাস্থল থেকে যখন ঐ মহিলাকে উদ্ধার করা হয় তখনও তিনি বেঁচে ছিলেন। যদিও হাসপাতালে চিকিৎসার সময় টুকু পাওয়া যায় নি। অত্যাচারের ফলে তার শরীর থেকে এতো টাই রক্ত বেরিয়ে গিয়েছিল যে তার শরীর সাদা হয়ে যায়।

ময়নাতদন্তের রিপোর্ট বলছে ঐ মহিলার বুকে বার বার ভারী কিছু দিয়ে আঘাত করা হয়েছে। যার ফলেই ভেঙে যায় পাঁজরের হাড়। ভারী কিছু দিয়ে পাও ভেঙে দেওয়া হয়। যৌনাঙ্গে ঢুকিয়ে দেওয়া হয় রড। গণধর্ষণের পর চলন্ত গাড়ি থেকে ফেলে দেওয়া হয়েছে মহিলাকে।

মহিলার পরিবার থানায় গণধর্ষণের মামলা দায়ের করেছে। যদিও পুলিশি গাফিলতির অভিযোগও রয়েছে। পরিবারের সদস্যরা অভিযোগ করেছেন, পুলিশ একবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন ছাড়া কিছুই করে নি। ৩ মাস আগেই উত্তরপ্রদেশে হাথরস গণধর্ষণের ঘটনাতেও একই ভাবে পুলিশি নিস্ক্রিয়তার অভিযোগ উঠেছিল। এই ঘটনা ফের একবার প্রমাণ করল উত্তর প্রদেশে সুরক্ষিত নয় মহিলারা।

 

Back to top button