টাইমলাইনবিশেষভারত

এবার ট্রেনে করেই সরাসরি পৌঁছে যাবেন গ্যাংটক, পাহাড় কেটে সুড়ঙ্গ গড়ায় বড় সফলতা অর্জন করল রেল

বাংলাহান্ট ডেস্ক : উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলওয়ে (Northeast Frontier Railway) সিকিম যাওয়া যাত্রীদের জন্য বড় সুখবর নিয়ে এলো। রাংপো ও গ্যাংটক (Gangtok) এবার জুড়তে চলেছে ট্রেন লাইনে। নাথুলা পর্যন্ত বিস্তৃত ট্রেন রুট (Train Route) প্রসারিত করার লক্ষ্যে রেল কর্তৃপক্ষের (Indian Railway) তরফে আপাতত সার্ভে চালানো হচ্ছে। এক উচ্চপদস্থ রেল আধিকারিক এই তথ্য জানিয়েছেন বুধবার। জানা গিয়েছে দ্রুতগতিতে এই কাজ চালানো হচ্ছে।

NRF এর প্রধান জনসংযোগ আধিকারিক এ প্রসঙ্গে একটি সংবাদ মাধ্যমকে বলেছেন, আপাতত সমীক্ষা চলছে রাংপো ও গ্যাংটককে যুক্ত করার যে লাইন রয়েছে তার ওপর। মার্চ মাসের মধ্যেই শেষ হয়ে যাবে এই কাজ। আপাতত সম্ভাব্য স্টেশন গুলির অবস্থান সম্পর্কে এই সার্ভে চালানো হচ্ছে। এছাড়াও, এই আধিকারিক সাক্ষাৎকারে মুখ খোলেন গ্যাংটক ও নাথু-লা রেলপথের কাজ নিয়ে।

তিনি জানান রেলপথ প্রসারিত করার জন্য প্রাথমিক সার্ভে এই রুটে শেষ হবে আগামী বছরের এপ্রিলের মধ্যে। উল্লেখ্য, একাধিক ঘটনার মাধ্যমে এই তথ্য সামনে এসেছে যে রাংপো – গ্যাংটক ও গ্যাংটক – নাথু-লা রেল লাইন দুটি কতটা জরুরী। সিকিমের মুখ্যমন্ত্রী পিএস তামাং এর সাথে বুধবার একটি বৈঠক করেন NRF এর জেনারেল ম্যানেজার আনশুল গুপ্ত।

জানা গিয়েছে, এই বৈঠকটি মূলত রেললাইন প্রসঙ্গেই হয়েছে। এই বৈঠকে আলোচনা হয়েছে জমি অধিগ্রহণ সংক্রান্ত বিষয় নিয়েও। অন্যদিকে, দিল্লির মোদি সরকারও সিকিমকে ভারতীয় রেলের মানচিত্রে আনার জন্য বদ্ধপরিকর। রেলওয়ে সিকিম রেলপথ প্রসারিত করার দিকে জোর দিয়েছে মূলত ২০১৭ সালে ডোকলামের ভারতীয় সেনা ও চীন আর্মির সংঘাতের পরেই।

fb img 1674654884340

পাশাপাশি সিকিমের রাংপো ও গ্যাংটক রেলপথে যুক্ত হলে বড় রকম সুবিধা পাবেন পর্যটকরাও। কারণ পুরোদমে রেললাইন বসানোর কাজ চলছে সেবক ও রাংপোর মধ্যে। সেই কাজ শেষ হলে ট্রেনে করেই দার্জিলিং থেকে পৌঁছানো যাবে সিকিম। পাশাপাশি মঙ্গলবার সেবক-রাংপো রুটেও কাজ পরিদর্শন করেন NRF-এর জেনারেল ম্যানেজার। এই রুটে প্রায় 14টি টানেল থাকবে বলে জানা গিয়েছে।

Related Articles