টাইমলাইনটাকা পয়সাভারত

একদিনে ১৯ হাজার কোটি টাকা বাড়ল গৌতম আদানির সম্পত্তি, ধনীদের তালিকায় পেলেন এই স্থান

বাংলা হান্ট ডেস্ক: বিশ্বের শীর্ষ দশ বিলিয়নেয়ারের তালিকায় এবার বড় ধরনের রদবদল হয়েছে। বর্তমান অবস্থান অনুযায়ী, ভারতীয় শিল্পপতি গৌতম আদানি আবারও এই তালিকায় ষষ্ঠ স্থানে উঠে এসেছেন। অন্যদিকে ফ্রান্সের ধনুকবের বার্নার্ড আর্নল্ট বেশ কিছুদিন ধরেই পেছনে ফেলেছেন জেফ বেজোসকে। পাশাপাশি, এই তালিকায় ভারতের অন্যতম আরেক বিজনেস টাইকুন মুকেশ আম্বানি দশম স্থানে নেমে এসেছেন।

লাভের সম্মুখীন হয়েছেন গৌতম আদানি:
ফোর্বসের রিয়েল-টাইম বিলিয়নেয়ার ইনডেক্স অনুসারে জানা গিয়েছে,, এই প্রতিবেদনটি লেখার সময় পর্যন্ত আদানি গ্রুপের চেয়ারম্যান গৌতম আদানির মোট সম্পদ ২.৫ বিলিয়ন ডলার (প্রায় ১৯ হাজার কোটি টাকা) বেড়ে ৯৮.১ বিলিয়ন ডলারে পৌঁছেছে। এমতাবস্থায়, এই সম্পদ বৃদ্ধির কারণে, তিনি আবার শীর্ষ তালিকায় ছ’নম্বর স্থানে পৌঁছেছেন। পাশাপাশি, ২০২২ সালের মোট উপার্জনের পরিপ্রেক্ষিতে, আদানি তাঁর সম্পদ উল্লেখযোগ্য হারে বৃদ্ধি করেছেন। যার ফলে তিনি প্রায়শই বিশ্বের অন্যান্য ধনকুবেরদের মোট সম্পদের বিচারে টেক্কা দিচ্ছেন।

দশম স্থানে রয়েছেন মুকেশ আম্বানি:
রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের চেয়ারম্যান মুকেশ আম্বানি, শ্রেষ্ঠ বিলিয়নেয়ারদের তালিকায় আবারও দশম স্থানে নেমে এসেছেন। এমতাবস্থায়, যদি আমরা ফোর্বসের তালিকা দেখি তাহলে বোঝা যাবে, আম্বানির সম্পদ সম্প্রতি প্রায় ১.৩ বিলিয়ন (প্রায় ১০ হাজার কোটি টাকা) ডলার বেড়েছে এবং তাঁর মোট সম্পত্তি ৯২.৪ বিলিয়ন ডলারে পৌঁছে গিয়েছে। উল্লেখ্য যে, সম্প্রতি আম্বানির কোম্পানি রিলায়েন্সের শেয়ারের দামও বৃদ্ধি পায়।

তিন নম্বরে নেমেছেন জেফ বেজোস:
অ্যামাজনের প্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজোস, যিনি দীর্ঘকাল ধরে শীর্ষ বিলিয়নেয়ারদের তালিকায় দুই নম্বরে ছিলেন, তাঁকেও এবার ১৪২.২ বিলিয়ন ডলারের সম্পদ নিয়ে তৃতীয় স্থানে নেমে আসতে হয়েছে। ফরাসি ব্যবসায়ী বার্নার্ড আরনাল্ট এখন ১৪৯.৬ বিলিয়ন ডলারের সম্পদের সাথে বিশ্বের দ্বিতীয় ধনী ব্যক্তি হিসেবে বিবেচিত হচ্ছেন।

ইলন মাস্ক তাঁর আধিপত্য অব্যাহত রেখেছেন:
বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তির শিরোপা এখনও টেসলা এবং স্পেসএক্সের প্রতিষ্ঠাতা ইলন মাস্কের কাছে রয়েছে। জানা গিয়েছে, সম্প্রতি মাস্কের সম্পদ বেড়েছে ৭.৬ বিলিয়ন (প্রায় ৫০ হাজার কোটি টাকা) ডলার। আপাতত তাঁর মোট সম্পদের পরিমান দাঁড়িয়েছে ২৩৪.৫ বিলিয়ন ডলারে।

এছাড়াও, ওই তালিকায় চতুর্থ স্থানে রয়েছেন মাইক্রোসফটের কর্ণধার বিল গেটস। তাঁর মোট সম্পদের পরিমাণ বেড়ে হয়েছে ১২৪.৯ বিলিয়ন ডলার। পাশাপাশি, ল্যারি পেজ ১০১.৪ বিলিয়ন ডলার নিয়ে পঞ্চম স্থানে উঠে এসেছেন।

ওয়ারেন বাফেটও তালিকায় নিচে নেমে গেছেন:
শীর্ষ দশ বিলিয়নেয়ারদের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত অন্যান্য ধনীদের প্রসঙ্গে বলতে গেলে জানাতে হয় ল্যারি এলিসন ৯৭.৬ বিলিয়ন ডলারের সম্পদ নিয়ে সপ্তম স্থানে রয়েছেন। অপরদিকে সের্গেই ব্রিন রয়েছেন অষ্টম স্থানে। ব্রিন সম্প্রতি ৪.৩ বিলিয়ন ডলারের লাভের সম্মুখীন হয়েছেন এবং সেই সাথে তাঁর মোট সম্পদ বেড়ে হয়েছে ৯৭.৫ বিলিয়ন ডলার। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে, ওয়ারেন বাফেট বর্তমানে ৯৬.৬ বিলিয়ন ডলারের সম্পদ নিয়ে এই তালিকায় নবম স্থানে নেমে এসেছেন।

Related Articles

Back to top button