টাইমলাইনবিনোদন

ওয়েব সিরিজে শুটিংয়ের নামে পোশাক খুলিয়ে যৌন নিগ্রহ, গেহানার বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ

বাংলাহান্ট ডেস্ক: আরো গুরুতর ভাবে ফা‌ঁসলেন ‘গন্দি বাত’ অভিনেত্রী গেহানা বশিষ্ঠ (gehana vasisht)। মুম্বই পুলিসের তরফে তিন তিনটি এফআইআর দায়ের হয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। এর আগেই গত ফেব্রুয়ারি মাসে পর্ন কাণ্ডে গ্রেফতার হয়েছিলেন গেহানা। সম্প্রতি জামিনে ছাড়া পেয়েই রাজ কুন্দ্রার হয়ে সরব হন তিনি। এবার ফের এক মহিলা মামলা দায়ের করেছেন গেহানার বিরুদ্ধে।

রাজ কুন্দ্রাকে সমর্থন করায় গেহানাকে সমন পাঠিয়েছিল মুম্বই পুলিস। কিন্তু অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে হাজির হননি তিনি। এরই মাঝে আরো এক অভিযোগে ফেঁসেছেন গেহানা। গত ২৭ জুলাই এক মহিলা মামলা দায়ের করেন অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে। গেহানা ছাড়াও আরো কয়েকজনের নামেও অভিযোগ রয়েছে এই মামলায়। উল্লেখ‍্য যে মামলায় অভিনেত্রীকে গ্রেফতার করা হয়েছিল তাতেও এক মহিলাই অভিযোগের আঙুল তুলেছিলেন তাঁর দিকে। ওয়েব সিরিজে কাজ দেওয়ার নাম করে যৌন নিগ্রহ করা হয়েছিল তাঁর, এমনি অভিযোগ করেছিলেন ওই মহিলা।


গত মার্চেই জামিনের জন‍্য আবেদন করেছিলেন গেহানা। কিন্তু সে আবেদন তাঁর খারিজ হয়ে যায়। তবে জুনে জামিন মঞ্জুর করতে সক্ষম হন তিনি। এবারে আগাম জামিনের আবেদন করে রেখেছেন অভিনেত্রী। অপর দিকে মুম্বই পুলিসকে গেহানার আইনজীবীর পরামর্শ, আগে এটা ঠিক করতে পর্ন মামলায় গেহানার ভূমিকাটা কী? সাক্ষী নাকি অভিযুক্ত।

গেহানার বিরুদ্ধে অভিযোগকারী মহিলা জানান, ২০১৬ তে তিনি হিন্দি ও মরাঠি সিরিয়ালে কাজ করেছেন। এর মাঝে তাঁর অজিত নামে এক ব‍্যক্তির সঙ্গে পরিচয় হয়। তাঁকে নিজের ছবি পাঠিয়ে ওয়েব সিরিজে পাইয়ে দেওয়ার আবেদন করেন ওই মহিলা। অজিত আবার নরেশ ও মিথুল নামে দুই ব‍্যক্তির সঙ্গে মহিলার পরিচয় করিয়ে তাঁর ফোন নম্বর দেন।

মহিলার অভিযোগ, ওই দুই ব‍্যক্তি তাঁকে ফোন করে মড আইল‍্যান্ড আসার কথা বলে। ওয়েব সিরিজে রানির চরিত্রে অভিনয় করার টোপ দেওয়া হয়। জানা যাচ্ছে, ওই সিরিজের পরিচালক ও প্রযোজক ছিলেন গেহানা। মহিলা অভিযোগ করেন, শুটিং চলাকালীন তিনজন বামন তাঁর পোশাক খুলে যৌন নিগ্রহ করে।

অভিযোগ ওঠায় গেহানার সাফাই ছিল, ওয়েব সিরিজটিতে তিনি ১০ লক্ষ টাকা খরচ করেছেন। এসব একটু আধটু তো করতেই হবে। শুধু তাই নয়। ভিডিওটি পরে একটি পর্ন সাইটে আপলোডও করা হয়। এরপরেই মহিলা অভিযোগ দায়ের করেন গেহানার বিরুদ্ধে। তবে অভিনেত্রীর আইনজীবী দাবি করেছেন তাঁর মক্কেলের ভিডিওগুলি এরোটিকা ঠিকই, তবে পর্নোগ্রাফিক নয়।

Related Articles

Back to top button