fbpx
টাইমলাইনরাজনীতি

CAA, NRC দুই ভাগে বিভক্ত কংগ্রেস! দলের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে ইস্তফা দিলেন গোয়ার চার কংগ্রেস নেতা

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ গোয়া কংগ্রেসের (Congress) চার নেতা সংশোধিত নাগরিকতা আইন (CAA) আর রাষ্ট্রীয় নাগরিকপঞ্জি (NRC) নিয়ে দলের ভাবমূর্তি দেখে বৃহস্পতিবার দল থেকে ইস্তফা দিয়ে দেন। পানজি গোয়া কংগ্রসের ব্লক সমিতির সভাপতি প্রসাদ অমোনকর, উত্তর গোয়া সংখ্যালঘু সভাপতি জাভেদ শেখ, ব্লক সমিতি সচিব দীনেশ কুবল আর বরিষ্ঠ কংগ্রেস নেতা শিবরাজ তারকর দল থেকে ইস্তফা দিয়ে দেন। দল থেকে ইস্তফা দেওয়ার পর ওনারা জানান যে, ওনারা নাগরিক সংশোধন আইনকে সমর্থন করেন। কংগ্রেস নেতা অমোনকর বলেন, কংগ্রেস নাগরিক আইন নিয়ে দেশের মানুষ বিশেষ করে মুসলিমদের ভুল বোঝাচ্ছে।

উনি বলেন, আমরা সিএএ আর এনআরসি নিয়ে কংগ্রেসের ভুল বিচারধারার বিরোধিতা করছি। বিপক্ষ হিসেবে আমরা শুধু বিরোধিতা করার জন্য বসে নে, আমাদের উচিৎ সবকিছু নিয়ে সঠিক আলোচনা করা। নাগরিক সংশোধন আইনের সমর্থন করা উচিৎ। অমোনকর বলেন, কংগ্রেসের নেতারা রাজনৈতিক চরিতার্থ সফল করার জন্য মানুষের মধ্যে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। বিশেষ করে তাঁরা মুসলিমদের মধ্যে ভয়ের পরিস্থিতি সৃষ্টি করছে।

উনি বলেন, ‘আমরা সিএএ এবং এনআরসি’র বিরুদ্ধে গত সপ্তাহেও কংগ্রেসের পাশে ছিলাম, কিন্তু পরে আমরা বুঝতে পারি যে কংগ্রেসের নেতারা মুসলিমদের মনে ভয় সৃষ্টি করার চেষ্টা করছে। অমোনকর বলেন। গোয়া একটি শান্তিপ্রিয় রাজ্য আর কংগ্রেস সংখ্যালঘুদের উসকানি দেওয়ার চেষ্টা করছে। উনি বলেন, গোটা দেশে সিএএ গণতান্ত্রিক ভাবেই লাগু হবে।

অমোনকর বলেব, ‘সিএএ পাকিস্তান, আফগানিস্তান আর বাংলাদেশে ধর্মীয় কারণে অত্যাচারিত হওয়া মানুষদের কথা মাথায় রেখে করা হয়েছে।”

Back to top button
Close
Close