টাইমলাইনবিনোদনভারত

বিশাল বড় চাপে পড়লো করন জোহর, সরকারের আদেশে জনসমক্ষে চাইতে হবে ক্ষমা

বাংলাহান্ট ডেস্ক: নেপোটিজমের অভিযোগ উঠতে না উঠতেই ফের বড়সড় ঝামেলার মুখে পড়লেন পরিচালক করন জোহর (karan johar)। গোয়ায় (goa) শুটিংয়ে গিয়ে আবর্জনা ফেলার অভিযোগে এবার তাঁকে জনসমক্ষে ক্ষমা চাওয়ার নির্দেশ দিল গোয়া সরকার।

সম্প্রতি একটি ছবির শুটিংয়ের জন‍্য গোয়া গিয়েছিলেন করন। সেখানে তাঁর বিরুদ্ধে আবর্জনা ফেলে গ্রাম নোংরা করার অভিযোগ ওঠে। উত্তর গোয়ার নেরুলের এক অধিবাসী সোশ‍্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও শেয়ার করেন সম্প্রতি। সেখানে আবর্জনার একটি স্তূপ দেখিয়ে তিনি দাবি করেন, দীপিকা পাডুকোনের ছবির ক্রু এই আবর্জনা ফেলেছে।


গত সপ্তাহে শুটিং শেষ হওয়ার পর যাবতীয় নোংরা কাপড় ও আবর্জনা গ্রামেই ফেলে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে। ভিডিওটি ভাইরাল হতেই তোলপাড় শুরু হয় নেটদুনিয়ায়। করন জোহরের ধর্মা প্রোডাকশনের বিরুদ্ধে ফের সরব হয় নেটিজেনরা। গত মঙ্গলবার এন্টারটেনমেন্ট সোসাইটি অফ গোয়ার তরফে ধর্মা প্রোডাকশনকে একটি নোটিস পাঠানো হয়।

বুধবার গোয়ার বর্জ‍্য প্রক্রিয়াকরণ মন্ত্রী মাইকেল লোবো বলেন, আবর্জনা ফেলা ও তা পরিস্কার না করে চলে যাওয়ার জন‍্য ধর্মা প্রোডাকশনের মালিক বা ডিরেক্টরকে গোয়ার অধিবাসীদের কাছে ক্ষমা চাইতে হবে। তাঁর কথায়, “ফেসবুকে ক্ষমা চেয়ে উনি লিখুন যে এই ভুল করেছি ও নিজের ভুল স্বীকার করুন। যদি উনি তা না করেন তাহলে আমরা ওর উপর জরিমানা করব। আমার বিভাগ ধর্মা প্রোডাকশনের উপর জরিমানা করবে।”

 

কটাক্ষ করতে ছাড়েননি কঙ্গনা রানাওয়াতও। করনকে একহাত নিয়ে তিনি টুইটে লেখেন, ‘ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি শুধুমাত্র দেশের নৈতিকতা ও সংষ্কৃতির জন‍্য ক্ষতিকারক নয়। বরং এটা এখন পরিবেশের জন‍্যও ক্ষতিকারক হয়ে উঠেছে। প্রকাশ জাভড়েকর জি দয়া করে এই তথাকথিত বড় প্রযোজনা সংস্থাগুলির নোংরা, দায়িত্বহীন আচরণ দেখুন ও ব‍্যবস্থা নিন।’

Back to top button