টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গভারতরাজনীতি

আচমকাই দিল্লী গিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক রাজ্যপালের, ঘনাচ্ছে রহস্য

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ রাজ্য রাজ্যপাল দ্বন্দ্বের কথা পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতিতে একটি অত্যন্ত আলোচিত বিষয়। একদিকে যেমন বারবার জগদীপ ধনকর সরকারের সমালোচনায় মুখর হয়েছেন, তেমনি অন্যদিকে তার বিরুদ্ধে সুর পঞ্চমে রেখেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিও। এমনকি বেনজির ভাবে রাজ্যপালের ভূমিকা নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠিও লিখতে দেখা গিয়েছে মমতাকে। এরই মাঝে মমতার দিল্লি সফরের কিছুদিন কাটতে না কাটতেই মঙ্গলবার বিকেলে বিমানে দিল্লি উড়ে গিয়েছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর। বুধবার তিনি বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গেও।

আর তার এই বৈঠকের পরই রীতিমতো জল্পনা শুরু হয়েছে রাজ্য রাজনীতিতে। সকলেই জানেন দিল্লি সফরে শুধু বিরোধী দলের সঙ্গে নয়, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গেও কথা বলেছেন মমতা। অনেকের মতে, সেখানে রাজ্যপালের কার্যকলাপ নিয়েও প্রধানমন্ত্রীর কাছে উষ্মা প্রকাশ করেছেন তিনি। সেই কারণেই রাজ্যের রাজ্যপালের অতি সক্রিয়তা কিছুটা কমেছে।

এরইমধ্যে এই বৈঠক যে ভীষণ তাৎপর্যপূর্ণ তা বলাই বাহুল্য। যদিও এই বৈঠকে কি বিষয়ে আলোচনা হয়েছে তা কিছুই জানা যায়নি। রাজ্যপালের জানিয়েছেন, এটি সৌজন্য সাক্ষাৎ ছাড়া আর কিছুই না। কিন্তু অনেকেই এর মধ্যে অন্য জল্পনার আভাস খুঁজছেন। সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল হিসেবে দু বছরের মেয়াদ শেষ করেছেন জগদীপ ধনকর।

ইতিমধ্যেই তার বিরুদ্ধে জৈন হাওয়ালা কান্ড নিয়েও যথেষ্ট সরব মমতা। আগামী দিনে কি স্ট্র্যাটেজি অবলম্বন করবেন রাজ্যপাল সেটাই এখন দেখার বিষয়। তবে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের অনেকের মতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে যে উষ্মা প্রকাশ করেছেন মমতা, তার ফল কিছুটা ফলেছে। যদিও আজ বৈঠকে আলোচনা কোনদিকে গড়ালো তা বুঝতে হলে তাকিয়ে থাকতে হবে রাজ্যপালের আগামী দিনের পদক্ষেপগুলির দিকে।

 

Related Articles

Back to top button